সাগরিকা দত্তচৌধুরি
করোনা চিকিৎসার মেডিক্যাল বর্জ্য ঠিকমতো নিষ্কাশন হচ্ছে কিনা তার নজরদারি চালাবে স্বাস্থ্য দপ্তর। করোনার চিকিৎসায় ব্যবহৃত মেডিক্যাল বর্জ্য নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করল স্বাস্থ্য দপ্তর। পিপিই, মাস্ক, গ্লাভস, সিরিঞ্জ–‌সহ ব্যবহৃত বর্জ্য নির্দিষ্ট বাগে ভরে তথ্য–‌সহ বারকোড লাগানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি কোভিড–১৯ বায়োমেডিক্যাল ওয়েস্ট ট্র‌্যাকিং অ্যাপ ব্যবহারেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
হাসপাতাল, কোয়ারেন্টিন সেন্টার, আইসোলেশন ওয়ার্ড, টেস্টিং ল্যাবরেটরি, স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে হোম কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে যাঁরা বর্জ্য সংগ্রহের কাজ করে থাকেন, মূলত তাঁরাই এই অ্যাপ ব্যবহার করে তথ্য বিনিময় করতে পারবেন। কর্মী, গাড়ির চালক, রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের সদস্য সবাই এই অ্যাপের মাধ্যমেই বর্জ্য ট্র‌্যাক করতে পারবেন। কীভাবে অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে তার বিস্তারিত বিবরণ স্বাস্থ্য দপ্তর প্রকাশ করেছে। কোন রঙের ব্যাগে কত কেজি বর্জ্য রয়েছে সব কিছু জানা যাবে অ্যাপের মাধ্যমে। অ্যান্ড্রোয়েড ফোনে গুগল প্লে স্টোর থেকে ‘‌কোভিড–১৯বিডব্লুউএম’‌ অ্যাপ ডাউনলোড করা যাবে।
অন্যদিকে এবার কোভিড চিকিৎসায় ব্যবহৃত পরিত্যক্ত বর্জ্য নির্দিষ্ট রঙের ব্যাগে ভরে বারকোড লাগিয়ে তা ফেলতে হবে। এই বারকোড স্ক্যান করলেই জানা যাবে সংশ্লিষ্ট মেডিক্যাল বর্জ্যের বিস্তারিত বিবরণ। কোন হাসপাতালে ব্যবহৃত হয়েছিল? কোন কোন কাজে ব্যবহার হয়েছিল? কোথায় ফেলা হয়েছে তার সবই জানা সম্ভব হবে।
হাসপাতাল, কোয়ারেন্টিন সেন্টার, ল্যাবরেটরি প্রভৃতি জায়গায় ব্যবহৃত পিপিই, মাস্ক, গ্লাভস–‌সহ একাধিক চিকিৎসা বর্জ্য নিয়ে নানান অভিযোগ উঠছিল। সম্প্রতি চিকিৎসা বর্জ্য অপসারণের জন্য রাজ্যগুলিকে বারকোড ব্যবস্থা চালুর নির্দেশ দিয়েছিল কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ফেলে দেওয়া পিপিই কিট, মাস্ক, গ্লাভস, চশমা, ফেস মাস্কস প্রভৃতি সামগ্রী অন্য কোনও জঞ্জালের সঙ্গে মেশানো যাবে না। অত্যন্ত সাবধানতার সঙ্গে নিয়ম মেনে এই সমস্ত বর্জ্য ঠিকঠাক পদ্ধতি মেনে ব্যাগের মধ্যে ভরে বারকোড লাগাতে হবে। বর্জ্যের ধরন অনুসারে কালো, লাল, নীল, হলুদ রঙের ব্যাগ বা বাক্স ব্যবহার করতে হবে। কোভিড চিকিৎসা বর্জ্য জমা করার জন্য দ্বিস্তরীয় ব্যাগ ব্যবহারেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ব্যাগের ওপর লেবেল লাগাতে হবে, যাতে সহজেই তা শনাক্ত করতে পারে সেন্ট্রাল বায়োমেডিক্যাল ওয়েস্ট ট্রিটমেন্ট ফেসিলিটি। স্ক্যানার যন্ত্র বা স্মার্ট ফোনের সাহায্যে ওই বার কোড স্ক্যান করলেই বিস্তারিত তথ্য মিলবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top