আজকালের প্রতিবেদন
রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা–‌মুক্ত ৫০১ জন। এখনও পর্যন্ত সুস্থ ১৬ হাজার ২৯১ জন। সুস্থতার হার ৬৫.‌‌৬২ শতাংশ। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন নাইসেডের অধিকর্তা শান্তা দত্ত। রাজ্যে নতুন করে আরও ৯৮৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৮২৩ জন। বর্তমানে সক্রিয় আক্রান্ত ৭ হাজার ৭০৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮২৭ জন। এখনও পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে মোট ৫ লক্ষ ৭২ হাজার ৫২৩টি। কলকাতা ৩৬৬, উত্তর ২৪ পরগনা ২২৩, হাওড়া ১০৬, দক্ষিণ ২৪ পরগনা ১০৩, মালদা ৪৫, হুগলি ৩৬, দার্জিলিঙে ৩২ জন–‌সহ একাধিক জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন।    
সমস্ত কোভিড হাসপাতালকে কড়াভাবে সতর্ক করা হয়েছে। চিকিৎসায় কোনও রকম খামতি বরদাস্ত করবে না স্বাস্থ্য দপ্তর। প্রোটোকল ম্যানেজমেন্ট টিমের নজরে যে ভুলত্রুটি ধরা পড়েছে তা অবিলম্বে শোধরানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রোগীর শারীরিক উন্নতি ও টপ শিট রেকর্ড ঠিকমতো মেনে চলা, অক্সিজেন দেওয়ার প্রেসক্রিপশন তৈরি করা, কুইক রেসপন্স টিম তৈরি, সুপারস্পেশ্যালিটি চিকিৎসকের ভিজিট করা, প্রোটোকল মেনে স্টেরয়েড ও অ্যান্টিকোয়াগুলেশন থেরাপি চালানো এবং উপুড় করে শুইয়ে ভেন্টিলেশনে দেওয়ার আগে মেকানিজম পদ্ধতিতে দেখে নিতে। এই ছ’‌টি পরামর্শ এদিন দেওয়া হয়েছে।
কোভিড হাসপাতাল প্রয়োজন হলে কমিউনিটি হেলথ অফিসারদের (‌সিএইচও)‌ কাজে লাগাতে পারবে। এই মর্মে এদিন স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডাঃ অজয় চক্রবর্তী একটি নির্দেশিকা জারি করেছেন। জেলায় সিএইচও–‌দের কাজ গোষ্ঠী সংক্রমণ ঠেকাতে প্রয়োজনীয় সচেতনতা গড়ে তোলা। 
করোনা সন্দেহে হরিদেবপুরের এক যুবকের চিকিৎসা না করার ফলে মৃত্যু হয়েছে এই অভিযোগ তুলে ঠাকুরপুকুরের এক নার্সিংহোমে ভাঙচুর চালায় পরিবার। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। বেলঘরিয়ায় একই পরিবারের পাঁচজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালের এক মহিলা চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বেলেঘাটা আইডিতে ভর্তি তিনি। পূর্ব বর্ধমানে প্রথম করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধের। মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগেই তাঁর সোয়াব নেওয়া হয়। রিপোর্ট পজিটিভ আসে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top