‌আজকালের প্রতিবেদন: ব্র‌্যান্ডেড পোশাক, জুতো, আধুনিক কায়দায় চুলের ছাঁট সবই তার চাই। অথচ মা লোকের বাড়িতে কাজ করে সংসার চালান। কিন্তু সে সবে নজর ছিল না রাকেশ দত্তর। নেশাভাঙ করত বলে অভিযোগ। মাঝে মাঝেই ঝামেলা হত মায়ের সঙ্গে। ছেলের দাবি পূরণ করতে না পারায় খুন হতে হল মাকে। ২৯ বছরের রাকেশ মাথা থেঁতলে দিল মায়ের। রিজেন্ট পার্ক থানা এলাকার ঘটনা। মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১১টা নাগাদ স্থানীয়রা রিজেন্ট পার্ক থানায় খবর দেন, পঞ্চাশোর্ধ্ব মহিলার দেহ উদ্ধার হয়েছে। নমিতা দত্তের দেহ পূর্ব পুঁটিয়ারির বাবুপাড়া এলাকার একটি ঘর থেকে উদ্ধার হয়। পুলিশ জানতে পারে, সোমবার রাত ১১টা থেকে মা–ছেলের মধ্যে তুমুল অশান্তি হয়। পরে রাকেশই মাকে খুন করে। নমিতাদেবীর মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ভারী বস্তু দিয়ে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ছাড়াও অসংখ্য কিল, চড়, ঘুসিও মারা হয়েছে। রাকেশ কেন এই কাণ্ড ঘটাল, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নির্দিষ্ট ধারায় মামলা শুরু হয়েছে।

জনপ্রিয়

Back To Top