Sadhan pandey: নিমতলা শ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হল সাধন পাণ্ডের, কান্নায় ভেঙে পড়লেন মেয়ে শ্রেয়া

আজকাল ওয়েবডেস্ক: চলে গেলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক সাধন পাণ্ডে।

রবিবার সকালে মুম্বইয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। গতকাল রাতেই তাঁর মরদেহ নিয়ে আসা কলকাতায়। পার্ক সার্কাসের পিস ওয়ার্ল্ড থেকে কাঁকুড়গাছির বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। সেখান থেকে বিধানসভায় নিয়ে আসা হয় সাধন পাণ্ডের মরদেহ। সেখানেই তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তৃণমূলের বিধায়করাও সেখানে শেষ শ্রদ্ধা জানান তাঁকে।
সোমবার বেলা ১২ট নাগাদ বিধানসভায় মন্ত্রী সাধন পাণ্ডের মরদেহ নিয়ে আসা হয়। সেখানে কিছুক্ষণ শায়িত রাখা হয় তাঁর মরদেহ। এরপরই নিয়ে আসা নিমতলা শ্মশানে। তৃণমূলের কর্মী, সমর্থক ছাড়াও তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে হাজির হন বিরোধী দলের নেতারাও। গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে হলদিয়ার বিধায়ক তাপসী মণ্ডল এবং খানাকুলের বিধায়ক সুশান্ত ঘোষ সাধনের মরদেহে মাল্যদান করে শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। প্রয়াত নেতার মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সুজিত বসু, স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়, সাংসদ সৌগত রায়, সব্যসাচী দত্ত, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়রা। নিমতলা শ্মশানে গান স্যালুটের মাধ্যমে সাধন পাণ্ডেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এই মুহূর্তেই বাবার মরদেহের সামনে কান্নায় ভেঙে পড়েন মেয়ে শ্রেয়া পাণ্ডে।
দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন সাধন পাণ্ডে। ২০২১ সালে ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। ভেন্টিলেশনেও রাখা হয় তাঁকে। রবিবার তাঁর মরদেহ নিয়ে কলকাতায় আসেন স্ত্রী ও মেয়ে শ্রেয়া। সেখানেই তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে পৌঁছে যান সুজিত বসু, শশী পাঁজারা।

আরও পড়ুন: রোশন পরিবারে রবিবাসরীয় আড্ডায় হাজির হৃত্বিকের চর্চিত প্রেমিকা সাবা! বিয়ের গুঞ্জন শুরু

আকর্ষণীয় খবর