আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আর জি কর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে পালানোর চেষ্টা করল এক বিচারাধীন বন্দী। পরে টালা থানার পুলিস ওই বন্দীকে আটক করে। বন্দীর নাম নীরজ সাউ(২০)। দমদম কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দী নীরজ। মঙ্গলবার সংশোধনাগারে ব্লিচিং পাউডার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে সে। তাই তাকে চিকিৎসার জন্য আর জি কর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। 
পুলিস জানিয়েছে মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটার সময় ওই বন্দী শৌচালয় যাওয়ার নাম করে নিজের বেড থেকে উঠে যায়। শৌচালয়ের একটা জানালার কাচ ভেঙে হাসপাতালের ৬ তলার বাথরুম থেকে বেরিয়ে রেন পাইপ বেয়ে নিচে নামার চেষ্টা করে। তা দেখে চিৎকার করে ওঠেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপর হাসপাতালের পুলিস ফাঁড়ি থেকে পুলিস পৌঁছায়। পুলিসকে দেখে ওই বন্দী একতলার বারান্দায় ঝাঁপ দিয়ে নামে। তারপর দোতলার একটি ঘরে আশ্রয় নেয়। পরে পুলিস গিয়ে ওই বন্দীকে আটক করে। 
প্রশ্ন উঠছে নিরাপত্তারক্ষী থাকা সত্ত্বেও একজন চিকিৎসাধীন বন্দী কীভাবে পালানোর চেষ্টা করল?‌ টালা থানার পুলিসের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কোনও গাফিলতি ছিল কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি পালানোর চেষ্টার জন্য ওই বন্দীর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে পুলিস।‌

জনপ্রিয়

Back To Top