আজকাল ওয়েবডেস্ক: কেউ বা কারা রাতের অন্ধকারে ইছাপুর রেল কেবিনের ধারে রেললাইনের পাশে এক সদ্যোজাত কন্যাসন্তানকে ফেলে পালিয়ে যায়। শিশুটির কান্নায় ছুটে আসেন গোবিন্দ কুর্মি নামে এক যুবক এবং তাঁর বন্ধুরা। তাঁরাই দ্রুত শিশুটিকে কোলে তুলে নিয়ে ছোটেন হাসপাতালের দিকে। ব্যারাকপুর বি এন বসু হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওই সদ্যোজাত কন্যাসন্তানটিকে।
বিশ্ব নারী দিবসের প্রাক্কালে এই ঘটনায় সকলেই ধিক্কার জানিয়েছেন ওই সদ্যোজাত কন্যার মা–বাবাকে। স্থানীয়দের বক্তব্য, তারা নিশ্চয়ই চেয়েছিল তাদের কন্যাসন্তানটির এভাবেই মৃত্যু হোক। তা না হলে কখনওই রেললাইনের ধারে ফেলে দিত না। তাদের খোঁজ শুরু করছে পুলিস। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শিশুটি ভাল আছে। ডাক্তার থেকে নার্স সকলেই সস্নেহে তাকে শুশ্রূষা করছেন। ‘‌কন্যাশ্রী’‌ বলে ডাকা হচ্ছে তাকে। কয়েক বছর আগে আগরপাড়ার একটি ডাস্টবিনের মধ্যে থেকে এরকমই এক সদ্যোজাতকে পেয়েছিলেন এক ব্যবসায়ী। নতুন জীবন পেয়ে সেই সদ্যোজাত এখন নামী স্কুলের ছাত্রী। পালিত বাবা–মায়ের নয়নের মণি।‌

জনপ্রিয়

Back To Top