‌সাগরিকা দত্তচৌধুরি: রাজ্যে নতুন করে ১৮৭ জন করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন। মোট সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা ২,১৫৭। সুস্থতার হার ৩৯.‌‌‌২১ শতাংশ। এদিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯,৩৫৪টি। রাজ্যে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ২,০৩,৭৫১।
গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৭১ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৫০১ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩,০২৭ জন। মৃত্যু হয়েছে আরও ৮ জনের। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৪৫। সরকারি কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ১৬,৮১৮ জন। সরকারি কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৫১,৮৮৭ জন। হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ১,৩৫,৫৩০ জন। মুক্ত হয়েছেন এখনও পর্যন্ত ৮৯,৭১২ জন।
এদিকে শনিবার রাতে মৃত্যু হয় হাওড়া অর্থোপেডিক হাসপাতালের ফার্মাসিস্টের। দিন সাতেক আগে তাঁর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। মৃত ফার্মাসিস্টের বাড়ি পূর্ব মেদিনীপুরে। করোনা ধরা পড়ার পর রাজ্যে প্রথম কোনও ফার্মাসিস্টের মৃত্যু হল।
বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের কর্মী আবাসনে আরও ৪ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এক কর্মী ও তাঁর পরিবারের ৩ সদস্য আক্রান্ত হয়ে আইডি হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন।  আপাতত আবাসনকে কন্টেনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ওখানকার কোনও কর্মীকে হাসপাতালের ওয়ার্ডের কাজে লাগানো হবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। রেল ভবনের এক কর্মীও করোনা আক্রান্ত। সিল করা হয়েছেন রেল ভবনের দোতলা।
খড়দা থানার সাব–ইনস্পেক্টরের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। ব্যারাকপুরের নোনাচন্দনপুকুরে যে আবাসনে তিনি থাকেন, সেখানে সিল করে দেওয়া হয়। আক্রান্ত এসআই এবং তাঁর স্ত্রীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।  
পুরুলিয়ায় নতুন করে যে ৬ জন আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে, তাঁরা সকলেই পুরুলিয়া ২ নম্বর ব্লকের বাসিন্দা। পুরুলিয়ার জেলাশাসক রাহুল মজুমদার বলেছেন, আগে একজন আক্রান্ত ছিলেন। শনিবার রাতে আরও ৬ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তদের বাড়ি ও আশপাশের এলাকাকে কন্টেনমেন্ট জোন করা হয়েছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক অনিলকুমার দত্ত বলেছেন, আক্রান্ত ৬ পরিযায়ী শ্রমিক মহারাষ্ট্র থেকেই এসেছেন। তাঁরা পুরুলিয়ার কোভিড হাসপাতালে ভর্তি। মুর্শিদাবাদে নতুন করে ১১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। জেলায় ভিন রাজ্য থেকে দেড় লাখের মতো পরিযায়ী শ্রমিক ফিরেছেন।
দিল্লি–ফেরত ১৬ বছরের এক কিশোর–সহ পূর্ব মেদিনীপুরের আরও দুই করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। তমলুকের শহিদ মাতঙ্গিনী ব্লকের গোবিন্দপুরের বাসিন্দা ওই কিশোর দিল্লিতে একটি সোনার দোকানে কাজ করত। আক্রান্তদের পাঁশকুড়ার বড়মা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিতাইচন্দ্র মণ্ডল।

জনপ্রিয়

Back To Top