আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিল যে লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফাতেও গরমের দাপট চলবে শহর জুড়ে। অক্ষরে অক্ষরে সেটাই মিলেও গেল। রবিবার সপ্তম দফার নির্বাচনে সকাল থেকেই ভ্যাপসা গরমে হাঁসফাঁস করেছেন মহানগরবাসী। তবে দক্ষিণের একাধিক জেলায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি। কলকাতার পাশাপাশি বৃষ্টি ধেয়ে আসছে দুই ২৪ পরগনা, নদিয়া, বীরভূম, মুর্শিদাবাদে।
বাতাসে অতিরিক্ত জলীয় বাষ্পের কারণে চরম আর্দ্রতায় নাজেহাল হচ্ছেন মানুষজন। এদিন আর্দ্রতার পরিমাণ প্রায় ৭৪ শতাংশ। যা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটাই বেশি। তার সঙ্গে তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তি অস্বস্তি যোগ করেছে। ফণীর পর কয়েকদিন স্বস্তি মিললেও আবার গরম বাড়তে শুরু করেছে। কলকাতায় এদিন সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত তাপমাত্রা ৩৫.২ ডিগ্রি। আপেক্ষিক আর্দ্রতা ৬৬ শতাংশ।
আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, এদিন আসানসোলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, হুগলিতে ৪১.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বাঁকুড়ায় তাপমাত্রা ৪০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বহরমপুরে ৩৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বর্ধমানে  ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, ক্যানিংয়ে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, দমদমে ৩৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, মালদহতে ৪০.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, মেদিনীপুরে ৩৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, পানাগড়ে ৩৯.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, পুরুলিয়াতে ৪১,৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, শ্রীনিকেতনে ৩৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, উলুবেড়িয়াতে ৩৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
কিন্তু বিকেল ৪টে থেকে আকাশ মেঘলা করে আসে। বিদ্যুৎ চমকাতে থাকে। রবিবার সন্ধ্যের পর ঝড়–বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। কালো মেঘে ঢেকে যায় আকাশ। তলানিতে নামতে শুরু করে পারদ। ঠাণ্ডা বাতাস বইতে শুরু করেছে কলকাতা–সহ দক্ষিণবঙ্গে। বৃষ্টির অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন রাজ্যবাসী। তবে এই পরিস্থিতিতে খানিকটা স্বস্তি মিলতে শুরু করেছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top