সম্বৃতা মুখার্জি: রংমিলান্তির দিন শেষ। এবার পুজোয় পোশাক ও অ্যাক্সেসরিজের বৈপরিত্যই ফ্যাশন। প্রতিবারই পুজোর কয়েক মাস আগে থেকেই ক্যালেন্ডারের পাতায় চোখ রাখা শুরু হয়ে যায়। কারণ, পুজো মানেই নতুন ফ্যাশন আর ট্রেন্ডে নিজেকে সাজিয়ে নেওয়া। সঙ্গে মানানসই ব্যাগ, জুতো।  সাবেকির পাশাপাশি ওয়েস্টার্ন লুকে আকর্ষণীয় হওয়ার টিপস দিলেন ফ্যাশন ডিজাইনার অভিষেক দত্ত।
কোরাল পিঙ্ক, সি গ্রিন, ক্যারট রেড, ট্যাঙ্গারিন অরেঞ্জ, হলুদ এবার পুজোর ফ্যাশনে ইন, জানালেন অভিষেক দত্ত। মহিলাদের সাবেকি পোশাক বলতে প্রথমেই চলে আসে শাড়ির কথা। জামদানির সঙ্গে হ্যান্ড ওভেন শাড়িরও কদর রয়েছে। জামদানি একরঙা হতে পারে আবার দু–তিন রকমের রঙের মিলমিশেও হতে পারে। তবে সামলানোর সুবিধার্থে ইয়ং জেনারেশন পছন্দ করছে নরম শাড়ি। তাই লিনেন জামদানি বা সফ্‌ট জামদানির চাহিদা রয়েছে। ষষ্ঠী বা অষ্টমীর সকালে এরকম একটা জামদানি বেছে নেওয়া যেতেই পারে। সপ্তমী বা নবমীর সন্ধের জন্য গাদোয়াল, মটকা সিল্ক। অভিষেক দত্তের মতে, সাদামাঠা শাড়ি তার সঙ্গে জমকালো ব্লাউজ এখনকার ট্রেন্ড। ডিজিটাল প্রিন্ট ব্লাউজের শোভা বাড়িয়েছে। রকমারি ডিজাইন থাকলেও, অনেকেই জ্যাকেটের মতো ব্লাউজ পছন্দ করছেন। কোয়ার্কি প্রিন্টের শর্ট জ্যাকেটের সঙ্গে স্মার্ট লুক আনছে শাড়ি। বেল স্লিভ নতুন করে ফ্যাশনে এসেছে। ব্লাউজের হাতেও থ্রি কোয়ার্টার বা শর্ট না করিয়ে বেল স্লিভ করিয়ে নেওয়া যেতে পারে।
ওয়েস্টার্ন পোশাকে এখনও পালাজো মহিলাদের মধ্যে বেশ পছন্দের। পালাজোর সঙ্গে অনায়াসে বেছে নেওয়া যেতে পারে ক্রপ টপ বা যে কোনও শর্ট টপ। ম্যাক্সি ড্রেস বেশ ফ্যাশনেবল। রয়েছে জাম্পশ্যুটও। এই সব পোশাককেই একটু অন্যরকম করে তোলে স্লিং বেল্ট। রকমারি রঙের স্লিং বেল্ট পরা যেতে পারে পোশাকের সঙ্গে কন্ট্রাস্ট করে। ছোট মেয়েদের জন্য রয়েছে শাড়ির মতো ডিজাইন করা ড্রেস। 
কোন রং মেয়েদের মানায়, কোন রং পুরুষদের, এই নিয়ে বাছাবাছি হত বেশ কয়েক বছর আগেও। কিন্তু এখন রঙের ঘেরাটোপ থেকে বেরিয়ে এসেছেন পুরুষরা। কোরাল পিঙ্ক, মাস্টার্ড, উজ্জ্বল সবুজ, অক্স ব্লাড, পার্পলকে অনায়াসে বেছে নিচ্ছেন পুরুষরাও। ‌পুরুষদের সাবেকি পোশাকের মধ্যে নেহরু জ্যাকেট কুর্তা বেশ চলছে। জ্যাকেটে রকমফের আনছে প্রিন্ট। একই রঙের দুরকম শেডের কুর্তা আর জ্যাকেট বেছে নেওয়া যেতে পারে। সাবেকিয়ানাকে পূর্ণতা দিচ্ছে ফ্যাশনেবল ধুতি। লিনেনের ধুতিতে ডিজিটাল প্রিন্ট অষ্টমীর অঞ্জলি বা বিজয়ায় পরতে পারেন যে কোনও বয়সের পুরুষই। পুরুষদের ক্যাজু্য়াল পোশাকের মধ্যে সামারকুল শার্ট জনপ্রিয় এ বছরেও।
খেয়াল রাখা প্রয়োজন জুতোর দিকেও। বৃষ্টিতে সব জুতো পরা যায় না। টিভিসি–‌র জুতোগুলো বৃষ্টিতে ভিজলেও নষ্ট হয় না। তবে বেল্ট, ব্যাগ বা জুতো— যে অ্যাক্সেসরিজই হোক, পোশাকের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা রঙের হওয়াই ভাল।

জনপ্রিয়

Back To Top