‘খেতে পাচ্ছি না, লড়াই করে মরব তাও ভাল’, লোকাল ট্রেন চালুর দাবিতে সোনারপুরে বিক্ষোভ

আজকাল ওয়েবডেস্ক: সকাল-সকাল বিক্ষোভ! লোকাল ট্রেন চালু করা নিয়ে সোনারপুর স্টেশনে কয়েকশো মানুষের বিক্ষোভ। রুজি-রুটির টানে কলকাতায় আসা পরিচারিকা ও শ্রমিক শ্রেণির মানুষের বিক্ষোভে বন্ধ স্পেশাল ট্রেন চলাচল। 

 

এদিন সকাল থেকেই ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানোর দাবিতে ও স্পেশাল ট্রেনে চড়তে দেওয়ার জন্য সোনারপুরে ট্রেন অবরোধ করেন সাধারণ মানুষ। সকাল সাড়ে সাতটা থেকে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ, যার জেরে আপ ও ডাউন লাইন বন্ধ রয়েছে ট্রেন চলাচল।‌ ফলে কর্মস্থলে পৌঁছতে পারছেন না জরুরি অবস্থার কর্মীরা। একাধিকবার আরপিএফ, জিআরপির তরফে তাদের অবরোধ তুলে নেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হলেও প্রতিবাদকারীরা তাদের এই অবস্থান থেকে পিছু হটতে নারাজ।

অবরোধকারীদের বক্তব্য, ‘আমরা খেতে পারছি না। এভাবে না খেয়ে মরার চেয়ে লড়াই করে মরা অনেক ভাল। ট্রেনে আমাদের চড়তে দিতেই হবে। ট্রেনের সংখ্যা বাড়ালে দূরত্ববিধি মানা সম্ভব হবে।’

এ বিষয়ে শিয়ালদহের ডিআরএম এসপি সিং জানিয়েছেন, ‘আমরা ট্রেন চালাতে চাই। রাজ্যের অনুমতি মিললেই ট্রেন চলবে। শিয়ালদহ ডিভিশনে অত্যধিক চাপ রয়েছে যার মধ্যে বনগাঁর ট্রেনে অত্যধিক ভিড় হয়। সেখানে দূরত্ববিধি মানা সম্ভব নয়। সেখানে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো দরকার।’

প্রসঙ্গত, গত বছরেও মাসের পর মাস বন্ধ ছিল ট্রেন আর এ বছরও কর্নার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জেরে ১৫ জুনের পর থেকে বন্ধ ট্রেন। যে সকল মানুষ কলকাতায় রুজি-রুটির সন্ধানে আসেন তাদের অত্যন্ত কষ্টের মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে। ধৈর্যের বাঁধ ভাঙছে সকলের। আর তার জেরেই এবার বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তারা।