‌ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় হাইকোর্টে ধাক্কা রাজ্যের, দায়িত্ব জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকেই

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় হাইকোর্টে ধাক্কা খেল রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকার এই মামলায় স্থগিতাদেশ চেয়ে আর্জি জানিয়েছিল হাইকোর্টে। কিন্তু রাজ্য সরকারের সেই আর্জি রাখল না কলকাতা হাইকোর্ট। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৫ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চে মামলাটি শুনানির জন্য ওঠে। আবেদন শোনার পর তা খারিজ করে দেওয়া হয়। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের কাছেই দায়িত্ব দেওয়া হল। এ প্রসঙ্গে ৫ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ রাজ্যকে জানায়, আগে রাজ্যকে এ সংক্রান্ত বিষয়ে বহুবার সুযোগ দেওয়া হয় কিন্তু বাস্তবে কোনও কাজ হয়নি। ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরানোর বিষয়ে রাজ্য সরকার কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরানোর অভিযোগগুলি নিয়ে রাজ্য সরকার গুরুত্ব দিয়ে কিছুই করেনি। রাজ্যের এহেন আচরণে ক্ষুব্ধ আদালত। তাই এ বিষয়ে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন বিষয়টি খতিয়ে দেখে রিপোর্ট তৈরি করবে। মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একটি কমিটি তৈরি করে দেওয়া হয়েছ। সেই কমিটির সদস্যরাই যাবতীয় বিষয়ে খোঁজ খবর করছেন। তারপর সেই রিপোর্ট ৩০ জুনের মধ্যে দেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, ১৮ জুন এই মামলায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৫ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চে রাজ্যকে ভর্ৎসনা করা হয়। সেইদিনই মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একটি কমিটি তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এই মামলায় স্থগিতাদেশ চেয়ে আবেদন করেছিলেন। মমতা ব্যানার্জি আবেদন করেছিলেন যে এই মামলায় রাজ্যকে আরও একবার সুযোগ দেওয়া হোক। কিন্তু শেষপর্যন্ত রাজ্যের সেই আর্জি খারিজ করে দিল আদালত।