আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সন্দেশখালি–বসিরহাটের ক্ষত এখনও দগদগে। বিজেপি’‌র তাণ্ডবে প্রাণ হারিয়েছেন অনেকে। আর মঙ্গলবার সেই রেশ কাটতে না কাটতেই আবার বোমা–গুলির শব্দে তপ্ত হয়ে উঠল ভাটপাড়া। এদিন বোমা মেরে এক প্রৌঢ় তৃণমূল কর্মীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আর তাতেই এলাকায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। এমনকী এই ঘটনায় আহত হন ওই তৃণমূল কর্মীর কর্মীর স্ত্রী–সহ তিনজন। তাঁদের ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 
এদিকে এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মৃতদেহ আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় যায় জগদ্দল থানার বিশাল পুলিস বাহিনী। চাপা উত্তেজনা থাকায় নামানো হয়েছে র‌্যাফও। এখানের লোকসভা আসন এবং বিধানসভা আসন পিতা–পুত্রের দখলে যাওয়ার পর থেকেই প্রায়ই এলাকায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। আর তৃণমূল কর্মী–সমর্থকদের লক্ষ্য করে হামলা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ শোনা যাচ্ছে। 
পুলিস ও স্থানীয় সূত্রে খবর, ভাটপাড়া আর্য সমাজ রোডে বাড়ির বাইরে স্ত্রীর সঙ্গে দাঁড়িয়ে ছিলেন প্রৌঢ় মহম্মদ হালিম। তখন হালিমকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া হয়। বোমার হামলায় চারজনের আঘাত লাগে। তাঁদের ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মহম্মদ হালিমকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। আর এই বোমা ফাটার খবর ছড়িয়ে পড়তেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয়দের একাংশ। পরিস্থিতি সামাল দিতে মোতায়েন করা হয় বিশাল পুলিস বাহিনী এবং র‌্যাফ। কে বা কারা এই হামলার পেছনে রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিস।

 

ছবি—এএনআই।

জনপ্রিয়

Back To Top