Police: মানুষের আরও কাছে পৌঁছতে চায় পুলিশ!‌ নবগ্রাম থানায় খোলা হল হেল্প ডেস্ক

শ্রেয়সী পাল: সাধারণ মানুষের কাছে আরও দ্রুত পৌঁছে যেতে চায় পুলিশ।

তাদের আরও ভালো পরিষেবা দিতে চায়। সেজন্য বৃহস্পতিবার মুর্শিদাবাদ জেলার নবগ্রাম থানা প্রাঙ্গণে চালু হল একাধিক নতুন ব্যবস্থা। একদিকে যেমন থানার অফিসার এবং কনস্টেবলদের জন্য চালু হল নতুন ব্যারাক, তেমনই থানায় বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আসা মানুষদের সুবিধার জন্য চালু হল একাধিক হেল্প ডেস্ক। 
বৃহস্পতিবার এই ব্যবস্থাগুলোর উদ্বোধন করেন মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার সুপার কে এস রাজকুমার। অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নবগ্রামের বিধায়ক কানাই চন্দ্র মণ্ডল, জঙ্গিপুরের সাংসদ খলিলুর রহমান সহ পুলিশ প্রশাসনের একাধিক শীর্ষকর্তা। 
পুলিশ সুপার জানান, 'নবগ্রাম থানা এলাকাটি বেশ বড়। এই থানায় অফিসার এবং কনস্টেবলদের থাকার সেরকম সুবন্দোবস্ত ছিল না। তাই এলাকার সাধারণ মানুষ এবং পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় আজ আমরা থানা প্রাঙ্গণে একটি ব্যারাক উদ্বোধন করলাম। এই ব্যারাকে এক সঙ্গে ৩০ জন কনস্টেবল এবং অফিসার থাকতে পারবেন।'

Booker Prize: এই প্রথম, বুকার পেল গীতাঞ্জলি শ্রীর হিন্দি উপন্যাস ‘‌রেত সমাধি’‌
 পুলিশ সুপার জানান, 'যদি কোনও সিনিয়র অফিসার এই থানা এলাকায় আসেন, তাঁর বিশ্রামের জন্য একটি ভালো রেস্ট রুমেরও আজ উদ্বোধন করা হয়েছে।' রাজকুমার জানান, 'এলাকার মানুষদের ভালো পরিষেবা দিতে এবং তারা যাতে থানায় এসে কোনও রকম অসুবিধার মধ্যে না পড়ে, সেদিকে লক্ষ্য রেখেই এই হেল্পডেস্ক। সুপ্রিম কোর্টের গাইডলাইন অনুযায়ী নবগ্রাম থানায় একটি 'চাইল্ড ফ্রেন্ডলি কর্নার' এবং মহিলাদের সমস্যা শোনার জন্য একটি হেল্প ডেস্ক হয়েছে। আমরা আশাবাদী এর ফলে এলাকার মানুষের সঙ্গে পুলিশের নিবিড় যোগাযোগ গড়ে উঠবে এবং এলাকার মানুষ থানায় এসে তাদের সমস্ত রকম অভিযোগ খুব সহজেই জানাতে পারবেন।'
 আজকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কয়েক জন বিশেষভাবে সক্ষম শিশু, কিশোরদের হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়। একই সঙ্গে থানার অফিসার ও সিভিক ভলেন্টিয়ারদের সাহসিকতার জন্য পুলিশ সুপার পুরস্কার প্রদান করেন।

আকর্ষণীয় খবর