‌আজকালের প্রতিবেদন- নারদ–‌কাণ্ডের তদন্তে সোমবার কে ডি সিং–সহ তিনজনকে নোটিস দিল সিবিআই। আগামী শুক্রবার সকাল এগারোটার সময় তঁাকে সিবিআই দপ্তরে দেখা করতে বলা হয়েছে। ইডি–‌র জেরায় কে ডি সিং বলেছিলেন, নারদ–‌ভিডিওর টাকা তিনি দেননি। অথচ ম্যাথু বলেছিলেন, ৮০ লক্ষ টাকা তিনিই দিয়েছিলেন।
সোমবার দু–‌‌‌দু’‌বার ব্যাঙ্কশাল আদালত এবং দু’‌বার সিবিআইয়ের দপ্তর নিজাম প্যালেসে দৌড়োদৌড়ি করেন নারদ–‌কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েল। রবিবার বিকেলের বিমানে কলকাতায় এসেছেন। এক দিকে নারদ–‌কাণ্ডের তদন্ত নিয়ে সিবিআই নোটিস পাঠিয়েছিল তঁাকে। এদিকে আদালতও নোটিস পাঠিয়েছিল মুচিপাড়া থানার একটি মামলায়। নারদ–‌কাণ্ডের তদন্তে সিবিআই দপ্তরে গিয়ে ম্যাথু স্যামুয়েল সোমবার একটি সিডি ও পেনড্রাইভ জমা দিয়েছেন, যাতে নারদ–‌ভিডিও তোলার খরচ সম্পর্কে সব বলা আছে। তিনি আগেই বলেছিলেন, ৮০ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছিল। সেই টাকা দিয়েছিল কে ডি সিংয়ের সংস্থা। পরে কে ডি সিং সিবিআইয়ের কাছে ‌বিষয়টি অস্বীকার করেন। ফের ম্যাথুকে জেরা করা হয়। দিল্লিতে তিনি জানান, ‘‌আমি যা বলার পরে বলব।’‌ এদিন তঁার ভিডিও‌র খরচ সম্পর্কে সমস্ত তথ্য সিবিআই–‌কে দিয়েছেন। অন্য দিকে, এদিনই ব্যাঙ্কশাল আদালতে অতিরিক্ত মুখ্য মেট্রোপলিটান ম্যাজিস্ট্রেট (‌দ্বিতীয়)‌ এজলাসে আইনজীবী নিয়ে যান ম্যাথু। মুচিপাড়া থানায় গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে তঁার বিরুদ্ধে ভয় দেখানো ও তোলাবাজির মামলা হয়। ম্যাথুর নারকো অ্যানালিসিস টেস্টের আবেদন করা হয় পুলিসের পক্ষ থেকে।
সরকারি আইনজীবী আদালতে জানান, এ বিষয়ে ম্যাথুর সম্মতি প্রয়োজন। আদালত তঁাকে হাজির হওয়ার জন্য সমন পাঠায়। ম্যাথু তঁার আইনজীবী শামিম আহমেদ ও ইয়াসিন রহমানকে নিয়ে আদালতে হাজির হন। আইনজীবীরা আদালতে জানান, তঁাদের মক্কেল আদালতের তলব পেয়ে হাজির হয়েছেন। কিন্তু নারকোর বিষয়ে কিছুই জানতেন না। তাই মক্কেলের মতামত প্রয়োজন। তঁাকে সময় দিতে হবে। সময় চেয়ে আবেদন করা হয়। আগামী ১৭ এপ্রিল এই মামলার শুনানি হবে।‌‌‌‌‌
এদিকে রাতে জানা গেছে কেডি সিংয়ের সংস্থা অ্যালকেমিষ্ট গ্রুপের কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেছে সিবিআই। নারদ ভিডিওর টাকা কীভাবে ম্যাথু সংগ্রহ করতেন তা নিয়ে ইতিমধ্যেই তথ্য সংগ্রহ করেছে সিবিআই। কলকাতায় সেসময় যারা ম্যাথুকে সাহায্য করেছিলেন তঁাদেরও পর্যায়ক্রমে ডাকা হবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top