আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রবিবার সকালে বাগডোগরার ব্যাংডুবি সেনা ছাউনিতে গোর্খা রাইফেলের নায়েক রাজীব থাপাকে শেষশ্রদ্ধা জানাল সেনাবাহিনী। তারপর কপ্টারে সহকর্মীর মরদেহ নিয়ে আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকের মেচপাড়ায় তাঁর বাড়িতে পরিবারের হাতে তুলে দেন জওয়ানরা। মরদেহ বাড়ি পৌঁছতেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তাঁর পরিজনরা। শোকের ছায়া নেমে আসে সারা গ্রামেও। নিজের গ্রামের শ্মশানেই পূর্ণ মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় নায়েক রাজীব থাপার।
গত ২৩ তারিখ জম্মু–কাশ্মীরের রাজৌরি ব্লকের নওশেরা সেক্টরে নিয়ন্ত্রণরেখায় পাকিস্তান সেনার সঙ্গে সংঘর্ষের সময় পাক গোলায় শহীদ হন ৩৪ বছরের রাজীব। তাঁর পরিবারে রয়েছেন তাঁর বাবা কুমার থাপা, স্ত্রী খুশবু মাঙ্গার ছেত্রী, তাঁদের আট মাসের মেয়ে এবং রাজীবের দুই ছোট বোন। কুমার থাপা মেচপাড়া চা বাগানের শ্রমিক ছিলেন। বছরখানেক আগেই তিনি অবসর নেন। দু’‌বছর আগে সান্তলাবাড়ির খুশবুর সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল রাজীবের। 
ছবি:‌ এএনআই   ‌

জনপ্রিয়

Back To Top