আজকালের প্রতিবেদন- শহরের প্রত্যন্ত ওয়ার্ডগুলিতে চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দিতে চালু হল ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা যান। সোমবার পুরভবনের প্রধান কার্যালয়ের সামনে ৫টি ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা যানের উদ্বোধন করলেন কলকাতা পুরসভার মহানাগরিক শোভন চ্যাটার্জি। বলেন, শহরের প্রান্তিক এলাকায় যেখান থেকে স্বাস্থ্যকেন্দ্র দূরত্বে রয়েছে, সেখানে চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দিতে চালু করা হল ভ্রাম্যমাণ ভ্যান। ১৪৪টা ওয়ার্ডের মধ্যে ৬০টি ওয়ার্ডে ঘুরে ঘুরে মানুষের চিকিৎসা করবে এই ভ্যান। ওষুধও পাওয়া যাবে। মেয়র আরও জানান, কলকাতাকে ডেঙ্গি আক্রান্ত শহর হতে দেব না। সারা বছর ধরে পুরসভা কাজ করে চলেছে। এদিনের অনুষ্ঠানে ছিলেন কলকাতা পুরসভার চেয়ারপার্সন মালা রায়, মেয়র পারিষদ অতীন ঘোষ, তারক সিং, বরো চেয়ারম্যান অনিন্দ্যকিশোর রাউত, তৃণমূল কাউন্সিলর সুনন্দা সাহা, শামিমা খাতুন, রাজেশ খান্না, অসীম বসু, কংগ্রেস কাউন্সিলর প্রকাশ উপাধ্যায়, স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিক–সহ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মেয়র পারিষদ (‌স্বাস্থ্য)‌ অতীন ঘোষ জানান, ৫টি ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা ভ্যান চালু হল। সকালে ৪ ঘণ্টা, বিকেলে ৪ ঘণ্টা ভ্যানগুলি ঘুরবে। ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা ভ্যানগুলিতে চিকিৎসক, নার্স, মেডিক্যাল অফিসার, কম্পাউন্ডার, ড্রাইভার ছাড়াও থাকবেন একজন কর্মী। পাওয়া যাবে ওষুধও। একইসঙ্গে পুরস্বাস্থ্য কেন্দ্রে এবার করা যাবে ব্যয়বহুল রক্তপরীক্ষাগুলো। খোলা হচ্ছে অ্যাডভান্সড প্যাথলজি। ১৬টি ডেঙ্গি নির্ধারক কেন্দ্রেই রক্তের বহুমূল্য পরীক্ষাগুলি করা হবে। এর মধ্যে ৬টি কেন্দ্রে প্রাথমিকভাবে উন্নততর রক্তপরীক্ষা করা যাবে। এর জন্য সেমি অটোঅ্যানালাইজার মেশিন বসানো হয়েছে। পরীক্ষাগারের কর্মীদের প্রশিক্ষিত করা হয়েছে। থাইরয়েড, ডায়াবেটিস–সহ রক্তের বিভিন্ন রকম পরীক্ষা করা যাবে।‌

‌ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা যান উদ্বোধনে শোভন চ্যাটার্জি, পারিষদ মালা রায় ও অতীন ঘোষ। সোমবার। ছবি:‌ অভিজিৎ মণ্ডল

জনপ্রিয়

Back To Top