আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সোমবার ডানলপ ময়দান মাঠে সভা করে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আবার বুধবার একই মাঠে সভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তার আগে মোদির সভা উপলক্ষে গাছ ‘‌কাটা’‌র প্রসঙ্গকে কেন্দ্র করে তপ্ত ডানলপ ময়দান। ‘‌মোদি এলেই ধ্বংস’‌ আর ‘‌দিদি এলেই সৃষ্টি।’‌ হুগলির সাহাগঞ্জের ডানলপ ময়দান  সরগরম এই পোস্টার–ব্যানারে। 
প্রধানমন্ত্রীর সভার পরই শুরু হয়ে গেছে রাজনৈতিক তরজা। প্রধানমন্ত্রীর সভার জন্য সাহাগঞ্জ ডানলপ ময়দান সংলগ্ন বেশ কিছু গাছ কাটা হয়েছে বলে অভিযোগ। সেই গাছ ‘‌কাটা’‌কে হাতিয়ার করেই মুখ্যমন্ত্রীর সভার প্রাক্কালে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ময়দানে নেমেছে তৃণমূল। আজ ডানলপ মাঠে গাছ নিয়ে হাজির হন বিধায়ক অসিত মজুমদার ও তৃণমূল নেতৃত্ব। সঙ্গে পোস্টার, ‘‌মোদি এলেই ধ্বংস’‌ আর ‘‌দিদি এলেই সৃষ্টি।’‌ মাঠে সেই পোস্টার সাঁটিয়ে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করল তৃণমূল।
বিধায়ক অসিত মজুমদারের কথায়, ‘‌প্রধানমন্ত্রী পরিবেশের ঊর্ধ্বে নন। নিরাপত্তা হোক বা সভার প্রস্তুতি–তাঁর জন্য অনুমতিপত্র লাগে। আর সেখানে বন দপ্তরের অনুমতি ছাড়াই বিজেপি এখানে শতাধিক প্রাচীন গাছ কেটে ফেলেছে। আমরা ইতিমধ্যেই বন দপ্তরে বিষয়টি জানিয়েছি। আজ ডানলপ চত্বরে বেশ কিছু গাছ লাগানো হয়েছে। আগামীকালের সভার পর, যত গাছ কাটা হয়েছে তার তিনগুণ বেশি গাছ তৃণমূলের তরফে লাগানো হবে।’‌ 
বিজেপির দাবি, মোদির হেলিপ্যাড তৈরির জন্যই ওই গাছ ‘‌কাটা’‌ প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল। এমনকি তাদের দাবি, গাছ আসলে ‘‌কাটা’‌ নয়, ‘‌ছাঁটা’‌ হয়েছিল। 

জনপ্রিয়

Back To Top