আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দ্বিতীয় দফার ভোটের পর রাজ্যে আসছেন মোদি–সহ তাঁর দুই সেনাপতি। একজন বিজেপি’‌র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ এবং অপরজন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। যাঁকে সম্প্রতি প্রচারে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। তার মধ্যে রাজ্যে বিজেপি’‌র জনপ্রিয় মুখের অভাব রয়েছে। তাই নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহকে দিয়ে ভোটের বৈতরণী পার করতে চাইছে বিজেপি। দলীয় সূত্রে খবর, ২০ থেকে ২৪ এপ্রিলের মধ্যে রাজ্যে প্রচারের বন্যা বইয়ে দেবেন মোদি–শাহ জুটি। প্রচারে আসবেন যোগী আদিত্যনাথও।
বিজেপি’‌র রাজ্য সদর দপ্তর সূত্রে খবর, আগামী ২০ এপ্রিল দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরে সভা করবেন মোদি। তারপর ২৩ এপ্রিল ফের রাজ্যে আসবেন তিনি। ওইদিন আসানসোলে সভা থাকছে তাঁর। পরেরদিন বোলপুর এবং রানাঘাটে সভা করতে পারেন মোদি। তারই মধ্যে রাজ্যে এসে পড়বেন অমিত শাহও। ২২ এপ্রিল কলকাতায় সাংবাদিক বৈঠক করবেন তিনি। তারপর উলুবেড়িয়া, কৃষ্ণনগর, বর্ধমান এবং সিউড়িতে সভা করবেন তিনি। বাংলায় আসন পেতে মরিয়া বিজেপি মনে করছে সভা করলেই মানুষ তাদের কাছে আসবে। তাই স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীকে বাংলার প্রচারে নামিয়ে আনা হয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। 
অমিত শাহ যখন কলকাতায় থাকবেন তখন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সভা করবেন বাংলায়। ২২ এপ্রিল কাটোয়া এবং বনগাঁয় সভা করবেন তিনি। সব মিলিয়ে হেভিওয়েটদের রাজ্যে নিয়ে আসতে বদ্ধপরিকর বঙ্গ বিজেপি। এখনও পর্যন্ত নির্বাচন উপলক্ষ্যে রাজ্যে তিনটে সভা করেছেন মোদি। শিলিগুড়ি, ব্রিগেড এবং কোচবিহারে। ফেব্রুয়ারি মাসে ঠাকুরনগর, দুর্গাপুর এবং ময়নাগুড়িতে সভা করেছিলেন তিনি। অমিত শাহও একাধিক প্রচারে এসেছেন রাজ্যে।

জনপ্রিয়

Back To Top