আজকাল ওয়েবডেস্ক: আকাশে বাতাসে বিজয়ের সুর। টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপ মেধা রত্ন উৎসব আর ভারতীয় সেনাবাহিনীর স্বর্ণিম বিজয় বর্ষ মিলেমিশে একাকার। শিলিগুড়ি ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি ক্যাম্পাসে প্রতি বছরের মত এবারও হল উত্তরবঙ্গে দশম শ্রেণীর বোর্ড পরীক্ষায় কৃতীদের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান। এই বছর তাতে অন্য মাত্রা যোগ হয়েছিল সেনাবাহিনীর সহযোগিতায়। মেধা রত্ন উৎসবে ১২৪ জনকে পুরস্কৃত করার সঙ্গে সঙ্গে তাদের উদ্বুদ্ধ করা হল দেশসেবায়। টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সত্যম রায়চৌধুরী বললেন, ‘মেধা যেন পরীক্ষার খাতায় সীমাবদ্ধ না থাকে।

তা যেন কাজে লাগে সমাজ ও দেশের সেবায়।'

 

প্রধান অতিথি এয়ার চিফ মার্শাল অরূপ রাহা ও বিশেষ অতিথি লেঃ জেনারেল অজয় কুমার সিং নবীন প্রজন্মকে আহ্বান জানালেন সেনাবাহিনীতে। একাত্তরে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে পাক বাহিনীকে পর্যুদস্ত করার সুবর্ণ জয়ন্তী পালনে ভারতীয় সেনাবাহিনী দেশব্যপী যে উদ্যোগ নিয়েছে, তাতে সামিল হওয়ার জন্য টেকনো ইন্ডিয়াকে ধন্যবাদ জানান তাঁরা। 
বুধবার এই অনুষ্ঠানে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বায়ুসেনার প্রতিনিধি, টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপের ডিরেক্টর মেঘদূত রায়চৌধুরী ও পলিন লভোয়া, সিইও ডঃ শঙ্কু বসু, ভাইস প্রেসিডেন্ট ভাস্কর রায়, সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ডঃ ধ্রুবজ্যোতি চট্টোপাধ্যায়, এস আই টির ডিরেক্টর ডঃ প্রদোষ কুমার আধভার্যু , বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের শিক্ষা ও ক্রীড়া বিষয়ক কাউন্সেলর রিয়াজুল ইসলাম, টেকনো স্কুলের উত্তরবঙ্গের সমন্বয়ক মীরা ভট্টাচার্য প্রমুখ।


এই অনুষ্ঠানে ক্যাম্পাস প্রকাশ ঘটল সত্যম রায়চৌধুরী সম্পাদিত দুটি বইয়ের। ‘মহাত্মা ফর ইউ' এবং ‘বঙ্গবন্ধু ফর ইউ'। সামরিক বাহিনীর ব্যান্ড ও সমরাস্ত্র প্রদর্শনী ছিল বিশেষ আকর্ষণ।
ছবি: অর্য্যাণী ব্যানার্জি

জনপ্রিয়

Back To Top