আলোক সেন, বাঁকুড়া: সিমলাপালের পল্লীভারতী হাইস্কুলের ছাত্র শুভ চক্রবর্তী মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছে বঁাকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ডে বসে। তার পরীক্ষার আসন ছিল লক্ষ্মীসাগর হাইস্কুলে। কিন্তু ১৩ ফেব্রুয়ারি একটি বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয় সে। গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে বঁাকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার বঁা পায়ে তখন ভীষণ যন্ত্রণা হচ্ছিল। সঙ্গে সঙ্গে তার পায়ের এক্সরে করা হয়। সেই এক্সরে ডাক্তার পরীক্ষা করে দেখেন এবং সেই পা প্লাস্টার করার সিদ্ধান্ত নেন। পায়ে প্লাস্টার নিয়ে তার পক্ষে পরীক্ষা–কেন্দ্রে গিয়ে পরীক্ষা দেওয়া সম্ভব ছিল না। সেই অসুবিধার কথা মাথায় রেখে, তার বাবা বিদ্যুৎ চক্রবর্তী মধ্য শিক্ষা পর্ষদের কাছে লিখিত আবেদন জানান, মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই তঁার ছেলের পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে। পর্ষদ সেই আবেদনের ভিত্তিতে বঁাকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই তার পরীক্ষার ব্যবস্থা করে। নির্বিঘ্নেই পরীক্ষা দিয়েছে শুভ। প্রশাসনের এই ‌পদক্ষেপে খুশি সবাই।

জনপ্রিয়

Back To Top