আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষকে একের পর এক আক্রমণ করেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। বলেন, সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনের থেকে ‌মোটা টাকা ‘‌বেতন পাওয়া’‌ কুণাল আসলে ‘‌দালাল’‌–এর কাজ করতেন। ‘‌নটোরিয়াস ক্রিমিনাল’‌ও বলেন দাগিয়েছেন। এর পরেই কুণাল ঘোষ জানালেন, মানহানির মামলা করবেন তিনি। 
এদিন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল বললেন, ‘‌দু’এক দিনের মধ্যেই আমার আইনজীবী ওঁকে নোটিস পাঠাবেন।’‌ শোভন যদিও এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি। 
ঝামেলার শুরু সোমবার। সেদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে তোপ দাগেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। বলেন, ‘‌ওঁর (মমতা ব্যানার্জি) পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গিয়েছে বলেই এ সব বলছেন। রাজীব কুমারকে বাঁচাতে ধরনায় বসেছিলেন তিনি। আবার সেই রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে শিলংয়ে গিয়ে সাক্ষী দিয়ে আসা কুণাল ঘোষকে দলের মুখপাত্র নিয়োগ করেছেন।’‌ 
এর পরেই কুণাল পাল্টা কটাক্ষ করেন শোভনকে। বলেন, তিনি ‘‌বৈশাখীর গ্ল্যাক্সো বেবি। ওঁকে আর কী জবাব দেব?‌’‌ এর পর শোভনকে গ্রেপ্তারের দাবিও তোলেন তিনি। 
তার পরেই বৃহস্পতিবার ফের মাঠে নামেন শোভন। বলেন, ‘‌মোটা অঙ্কের বেতন নিয়ে বিভিন্ন চিটফান্ড সংস্থার হয়ে কুণালের কী ভূমিকা ছিল তা সবাই জানে।’‌ কুণালকে ‘‌পকেটমার’‌–এর সঙ্গেও তুলনা করেন। তাঁর খোঁচা, পকেটমার ধরা পড়লে অন্যদের দিকে আঙুল তোলে। 

জনপ্রিয়

Back To Top