সুখেন্দু আচার্য, কল্যাণী: সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষে কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে শুরু হল দু’‌দিনের আন্তর্জাতিক আলোচনাসভা। আলোচনার বিষয়:‌ সত্যজিৎ একাই একশো। আলোচনাসভায় বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‌সত্যজিৎ রায় ছিলেন আমাদের কাছে ঈশ্বর। কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক যেমন যে কোনও জটিল বিষয়কে সহজ–সরল করে বোঝান, তেমনই সত্যজিৎ তাঁর সিনেমার অভিনেতা–অভিনেত্রীদের যে কোনও দৃশ্য সেইভাবে বুঝিয়ে দিতেন।’‌ মঙ্গলবার আলোচনাসভার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য শঙ্করকুমার ঘোষ। ছিলেন চলচ্চিত্র সমালোচক শমীক বন্দ্যোপাধ্যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রধান সুখেন বিশ্বাস, সাংবাদিক ঋতব্রত ভট্টাচাৰ্য–সহ বহু বিশিষ্ট ব্যক্তি। 
আলোচনার সূচনা করে উপাচার্য বলেন, ‘‌সত্যজিৎ রায় একটা ডিকশনারি। কারণ বাংলার শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সব মিশে গেছে সত্যজিতে এসে।’‌ ২ মে সত্যজিতের জন্মদিন থেকে সারা বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের সামনে তঁার শিল্পভাবনা, সাহিত্য ও সিনেমা তুলে ধরা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রধান সুখেন বিশ্বাস বলেন, ‘‌নদিয়াতে সত্যজিৎ রায়ের পূর্বপুরুষেরা দীর্ঘদিন বসবাস করে গেছেন। তাঁর অনেক সিনেমার শুটিং এই নদিয়াতে হয়েছে। তাই আমরাই প্রথম সত্যজিতের জন্মশতবর্ষ পালনে সাক্ষর করলাম। শমীক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌সত্যজিৎ একবার দূরদর্শন কর্তৃপক্ষকে বলেছিলেন, তোমরা টিভি–তে কীভাৱে ছবি তুলতে হয় জানো না। তাই এখন আমি তোমাদের কোনও অনুষ্ঠানে যাব না। যাননিও এক বছর।’‌ আলোচনাসভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। সভাগৃহ উপচে পড়েছিল  ভিড়ে। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top