সোহম সেনগুপ্ত- কলকাতার পর এবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সদর বারাসতের পুজো কমিটিগুলি ভিআইপি কার্ড বা গেস্ট কার্ড ছাপাতে পারবে না। এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা প্রশাসন। বারাসত জেলার পুলিশ সুপার সি সুধাকর সোমবার জানান, পুজোয় ভিআইপি পাস কিংবা গেস্ট কার্ড করা যাবে না। দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে মণ্ডপ খোলা রাখতে হবে। প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তে স্বাভাবিকভাবে খুশি দর্শনার্থীরা।
বারাসতের বড় কালী পুজোমণ্ডপে দর্শনার্থীদের সাধারণ লাইনের পাশাপাশি ভিআইপি ও গেস্ট কার্ডেরও দীর্ঘ লাইন পড়ে। কোনও কোনও সময় দেখা যায় সাধারণ লাইনের চাইতেও ভিআইপি কার্ড ও গেস্ট কার্ডের লাইন লম্বা হয়ে যায়। গত বছর এ নিয়ে বেশ কয়েক জায়গায় গন্ডগোলও হয়। যদিও সে সময় পরিস্থিতি সামাল দেন বারাসত থানার আইসি দীপঙ্কর ভট্টাচার্য। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, মণ্ডপে ঢোকার লাইনগুলি দীর্ঘ করার জন্য অনেক সময় দেখা যায় মণ্ডপের সামনে স্বেচ্ছাসেবকরা দড়ি ধরে দাঁড়িয়ে আছেন। এতে একদিকে যেমন দীর্ঘ লাইন পড়ে, অন্যদিকে ঠেলাঠেলিতে দুর্ঘটনা ঘটারও সম্ভাবনা থাকে। একই অবস্থা হয় গেস্ট কার্ড ও ভিআইপি কার্ডের লাইনেও। এগুলি তুলে দেওয়া হলে দর্শনার্থীদের মধ্যে আর কোনও বিভেদ থাকবে না। পাশাপাশি মণ্ডপের সামনে দর্শনার্থীদের দীর্ঘ লাইনও পড়বে না। তাই এ বছর থেকে গেস্ট কার্ড ও ভিআইপি পাস বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দু–একদিনের মধ্যে এই সিদ্ধান্ত বারাসতের কালীপুজো কমিটিগুলিকে জানিয়ে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে প্রশাসন।‌

গুজরাটের সোমনাথ মন্দিরের আদলে পুজোমণ্ডপ। ছবি:‌ ভবতোষ চক্রবর্তী‌

জনপ্রিয়

Back To Top