আজকালের প্রতিবেদন: এ বছরের রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হবে আগামী শুক্রবার, ৭ আগস্ট। শনিবার এ খবর জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি। একই সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, কাউন্সেলিং প্রক্রিয়ার পুরোটাই অনলাইনে হবে। যাদবপুর, কলকাতা–সহ রাজ্যের বিভিন্ন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলিতে ভর্তির জন্য এ বছরের এই পরীক্ষায় আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ৮৮ হাজার। এবারই প্রথম উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার আগেই জয়েন্ট পরীক্ষা হয়। পরীক্ষা হয়েছিল ২ ফেব্রুয়ারি। করোনা পরিস্থিতিতে পরীক্ষা শেষের ৬ মাস পর ফল প্রকাশিত হচ্ছে। শুক্রবার কখন ফল প্রকাশিত হবে, ছাত্রছাত্রীরা কোন কোন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফল জানতে পারবে বোর্ডের তরফে কিছুদিনের মধ্যে তা জানানো হবে বলে জানা গেছে। প্রতিবারই জয়েন্টের কেন্দ্রীয় কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর রাজ্যের ডিগ্রি কলেজগুলিতে স্নাতকের প্রথম বর্ষে পড়ুয়া ভর্তি হয়। এ বছর এই কলেজগুলিতে ভর্তি প্রক্রিয়া ১০ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলিতে স্নাতকের প্রথম বর্ষে ভর্তি শুরু হবে। ওই সময় জুড়ে জয়েন্টের কাউন্সেলিংও চলবে। একই সঙ্গে সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি প্রক্রিয়া চললে ডিগ্রি কলেজগুলিতে আসন শূন্য থাকার প্রবণতা কমবে বলে মনে করছেন বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষরা। লেডি ব্রেবোর্ন কলেজের অধ্যক্ষ শিউলি সরকার বলেন, ‘‌একই সঙ্গে যদি কলকাতা, যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলোতে ভর্তি প্রক্রিয়া চলে তাহলে সাধারণ কলেজগুলোতে, বিশেষ করে বিজ্ঞানের বিষয়ে আসন ফাঁকা থাকার প্রবণতা অনেকটাই কমবে।’‌ প্রসঙ্গত, ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে গত বছর সব মিলিয়ে আসন সংখ্যা ছিল ৩৪ হাজার। কেন্দ্রীয় কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে হাজার দশেক আসনে পড়ুয়া ভর্তি হয়েছিল। বাকি আসনের অধিকাংশই বিকেন্দ্রীভূত কাউন্সেলিংয়র মাধ্যমে পূরণ হয়েছে বলে জানা গেছে।

জনপ্রিয়

Back To Top