Jalpaiguri TMC: বিক্ষুব্ধ তৃণমূল নেতাকে পুলিশের গাড়ি থেকে ছিনিয়ে নিলেন অনুগামীরা

আজকাল ওয়েবডেস্ক: জলপাইগুড়িতেও পুরভোটের আগে তুলকালাম।

পুলিশের গাড়ি থেকে তৃণমূল নেতা মলয় ব্যানার্জিকে ছিনিয়ে নিলেন তাঁর অনুগামীরা। ঘটনার সূত্রপাত তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর। প্রথম তালিকায় জলপাইগুড়ির ১নং ওয়ার্ডে তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে নাম ছিল মলয় ব্যানার্জি।  কিন্তু দ্বিতীয় তালিকা প্রকাশের পর দেখা যায় তাঁর নাম সেখানে নেই। তারপরেই নির্দল প্রার্থী হিসেবে মলয় মনোনয়ন জমা দিতে গেলে পুলিশ তাঁকে বাধা দেয় বলে অভিযোগ ওঠে। শুরু হয় ধস্তাধস্তি। এদিকে পাল্টা কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে তৃণমূলের বিক্ষুব্ধ এই নেতা-সহ তাঁর অনুগামীদের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করে পুলিশ। পাল্টা মামলা দায়ের করেন তিনিও।

 

এরপর বুধবার আইনজীবীদের সঙ্গে নিয়ে মহাকুমা শাসকের দপ্তরে মনোনয়ন জমা দিতে এলে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সরগরম হয়ে ওঠে গোটা এলাকা। পুলিশের গাড়ি আটকে তাঁকে গাড়ি থেকে নামান তাঁর অনুগামীরা। অনুগামীরা বলেন, উনি একজন সৎ লোক। ৩৬ বছর ধরে রাজনীতি করছেন। খুব ভাল লোক। গরিবের ভগবান। সব নতুন নতুন এসে অনেক কিছু হয়ে যাচ্ছেন। এসব মানা যায় না।’

সারাদিন টানাপোড়েনের পর হাইকোর্টের অর্ডার থাকা সত্ত্বেও মনোনয়ন দাখিল করতে পারলেন না মলয় ব্যানার্জি। এদিনও মনোনয়ন দাখিল করতে এলে তাঁকে আটকায় পুলিশ। শুরু হয় ধস্তাধস্তি। তারপর অবশ্য  মহকুমা শাসকের দপ্তরে যেতে দিলেও ততক্ষণে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় পার হয়ে যায়। সূত্রের খবর, আদালতের দ্বারস্থ হচ্ছেন তিনি।

আরও পড়ুন: শীত বিদায়ের পালা, চড়ল পারদ, ফের বৃষ্টির পূর্বাভাস রাজ্যে!

প্রসঙ্গত, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর থেকেই জেলায় জেলায় বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। প্রার্থী তালিকা নিয়ে চরম অসন্তোষ রয়েছে কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে। এখানেও তার অন্যথা হল না।

আকর্ষণীয় খবর