আজকালের প্রতিবেদন- বিগত বছরগুলির মতো এবারের ছাত্রভোটও যাতে গণতান্ত্রিক পদ্ধতি মেনে ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে হয়, তার জন্য আবেদন করলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। 
যাদবপুরে ছাত্রভোট ১৯ ফেব্রুয়ারি, বুধবার। গণনা ২০ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার। তার আগে সোমবার বিগত বছরগুলিতে যেভাবে ছাত্রভোট হয়েছে, তার উল্লেখ করে  ছাত্রছাত্রী–সহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের কাছে ভোট যাতে শান্তিপূর্ণভাবে হয়, তার আবেদন করেছেন উপাচার্য। তিনি বলেন, ‘‌ছাত্রভোট শান্তিপূর্ণ ও গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে হওয়ার যে ঐতিহ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে, এবারও তা বজায় থাকবে। ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক, গবেষক, শিক্ষাকর্মী, আধিকারিক–সহ সবাই মিলে আমরা সেই ধারা এবারও বজায় রাখব।’ বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের অংশ নেওয়া, সোচ্চার হওয়ার বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে গর্বের বলেও মন্তব্য করেন তিনি। প্রসঙ্গত, রাজ্যের অন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলির সঙ্গে যাদবপুরেও শেষ ভোট হয়েছিল ২০১৭ সালে। এ বছর ইঞ্জিনিয়ারিং ও কলা বিভাগের সব পদেই প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ, এসএফআই এবং এবিভিপি। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের সব পদেই লড়ছে ডিএসএফ। কলা বিভাগে লড়ছে ফ্যাস। এ ছাড়াও আইসা, ডিএসও, র‌্যাডিক্যালের পক্ষ থেকেও কিছু আসনে প্রার্থী দেওয়া হয়েছে।

জনপ্রিয়

Back To Top