Fugitive: বাংলাদেশের ‘নীরব মোদি’ পিকে হালদারের বিপুল সম্পত্তির খোঁজ কলকাতার বুকে! 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: প্রশান্তকুমার হালদার।

বাংলাদেশের ব্যাঙ্ক পাড়ায় পরিচিত পিকে হালদার নামে। ওপার বাংলার কয়েকটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ রয়েছে তার নামে। বর্তমানে পলাতক পিকে। এ যেন বাংলাদেশের নীরব মোদি কিংবা বিজয় মালিয়া।
এবার তার বিপুল সম্পদের সন্ধান মিলল কলকাতায়। এপার বাংলার অন্তত ৯টি জায়গায় অভিযান চালিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। দিল্লি ও মুম্বইয়ে আরও সম্পদ থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বাংলাদেশ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগ রয়েছে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বাংলাদেশে ৩৪টি মামলা হয়েছে। গ্রেফতার হয়েছে ১২ জন।

আরও পড়ুন: মুন্ডকা অগ্নিকাণ্ডে গ্রেপ্তার বাণিজ্যিক ভবনের দুই মালিক, মৃত্যু হয়েছে তাঁদের বাবারও!​ 


বাংলাদেশে পিকের এক হাজার কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এবার বাংলাদেশের গণ্ডি পেরিয়ে ভারতবর্ষের কলকাতায় মিলল তার অবৈধ সম্পদের সন্ধান। শুক্রবারের অভিযানে পিকের সহযোগী সুকুমার মৃধার বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির সন্ধান পেয়েছে ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনী। ধারণা করা হচ্ছে দিল্লি ও মুম্বইয়েও রয়েছে তার অঢেল সম্পদ।
মাসখানেক আগে পিকে হালদারের অর্থপাচারের সহযোগিতার অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন ডেপুটি গর্ভনর এসকে সুর চৌধুরী এবং প্রাক্তন নির্বাহী পরিচালক শাহ আলমকে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অর্থ লুঠপাটে এই দু’জন পিকে হালদারকে সহযোগিতা করেছিলেন বলে জবানবন্দি দিয়েছে এক অভিযুক্ত।
পিকে হালদারের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে এ পর্যন্ত ৩৪টি মামলা হয়েছে। তার সহযোগী সহ বিভিন্ন পর্যায়ের ১২ জনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১০ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পিকে ইস্যুতে ৬৪ জনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞাও রয়েছে।
 

আকর্ষণীয় খবর