আজকাল ওয়েবডেস্ক: শুক্রবার বীজপুরে মন্ত্রিসভার মঞ্চ থেকে বিজেপিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। বিজেপির রাজনীতিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘‌বাংলায় এইরকম সন্ত্রাস আগে ছিল না। ভোটের পর থেকেই শুরু হয়েছে এই সন্ত্রাস। আমার বাংলায় অশুভ শক্তির ছায়া পড়েছে। মৌলবাদী, উগ্রপন্থীরা তৃণমূল কর্মীদের খুন করছে। বাইকে চেপে গুন্ডামি করে বেড়াচ্ছে রাজ্যজুড়ে।’‌ আজ মন্ত্রিসভার মঞ্চে দাঁড়িয়ে সন্ত্রাস প্রতিরোধে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। গেরুয়া সন্ত্রাস রুখতে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘‌সংগঠন আরও মজবুত করুন। মানুষের কাছে গিয়ে কথা বলুন। তাঁদের পাশে দাঁড়ান।’‌ 
লোকসভা নির্বাচনের পর বহু দলীয় কর্মী ও নেতা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। অনেক নেতা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ভাবছেন। তাঁদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌যাঁরা যেতে চাইছেন এখনই চলে যান। আমি আটকাব না। আপনারা দল ছাড়লে দলেরই ভালো হবে। আমি আবার নতুন করে শুরু করব।’‌ সংগঠন আরও মজবুত করার প্রসঙ্গে স্থানীয় নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘‌আমরা এখনও দুবছর সরকারে আছি। আপনারা পাড়ার বখাটে ছেলেদের দলে নিয়ে আসুন। নির্ভয়ে যোগ দিতে বলুন। তাদের বলুন বায়োডাটা জমা দিতে। আমি সবার চাকরির ব্যবস্থা করব।’‌ 
এনআরএস কান্ড নিয়েও কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। বহিরাগত তত্ত্বে অনড় থেকে তিনি বলেন, ‘‌আমি ভুল বলছি কিনা একটু খোঁজ নিয়ে দেখুন। সেদিন এনআরএস-এ যে ভাষণ রাখছিল তাঁর নাম দীপক গিরি। গত দশ বছর ধরে ক্যালকাটা হার্ট সেন্টারে চাকরি করছে সে। কিকরে সে এনআরএস-এর জুনিয়র ডাক্তার হয়? সবাই বহিরাগত আমি একবারও বলিনি।’‌  

জনপ্রিয়

Back To Top