আজকাল ওয়েবডেস্ক: পেট্রোল-ডিজেলের দাম আকাশছোঁয়া। তার মধ্যে আংশিক লকডাউন। এর জোড়াফলায় বেসরকারি বাস ও অন্যান্য পরিবহন চলছে খুবই কম সংখ্যায়। যার ফলে সমস্যায় সাধারণ মানুষ। তবে মূল্যবৃদ্ধির জন্য যতই খরচের বোঝা বাড়ুক না কেন, রাস্তায় যাতে পর্যাপ্ত সরকারি বাস থাকে তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দিলেন রাজ্যের নতুন পরিবহনমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷ দায়িত্ব নেওয়ার পর এদিন প্রথম পরিবহন দফতরে গিয়ে আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি৷ তার পরেই সাংবাদিকদের জানান, রাজ্যে সরকারি বাস নির্দিষ্ট পরিমাণে চলবে। পাশাপাশি নতুন যে মেট্রো স্টেশনগুলি শহর এবং শহরতলিতে তৈরি করা হচ্ছে, তার সংযোগকারী অটো রুটও বাড়ানো যায় কি না, তাও খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, রাস্তায় বেরিয়ে বাস না পেয়ে সাধারণ মানুষকে যাতে হয়রানি না পোহাতে হতে হয়, সে বিষয়টি দেখার জন্য তিনি নির্দেশ দিয়েছেন৷ বিশেষত অফিসে ৫০ শতাংশ কর্মচারী নিয়ে কাজ চললেও বেসরকারি বাসের অমিল থাকায় ওই সম। চরম সমস্যায় পড়েন সাধারণ মানুষ। তাই অফিস টাইমে প্রয়োজনে বেশি সরকারি বাস চালানো হবে বলেও জানান পরিবহনমন্ত্রী।

গত কয়েকমাস ধরে ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে সরব বাস মালিকরা৷ জ্বালানির বিপুল দামের জেরে সরকারি বাসগুলিও রীতিমতো হাঁসফাঁস করছে৷ সমস্যা সমাধানে তিনি বিদ্যুৎচালিত বাস বেশি করে চালানোর উপরে জোর দিয়েছেন৷ তবে তার জন্য আগে পর্যাপ্ত সংখ্যক রিচার্জ স্টেশন গড়ে তোলা প্রয়োজন বলে স্বীকার করেছেন মন্ত্রী৷ বিদ্যুৎচালিত যানবাহনের জন্য আরও বেশি সংখ্যক রিচার্জ স্টেশন যাতে গড়ে তোলা যায়, তার জন্য পশ্চিমবঙ্গ পরিবহন পরিকাঠামো উন্নয়ন নিগমকে ঢেলে সাজানোর নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

জনপ্রিয়

Back To Top