Durga Puja 2021: ‌পুজোয় হট ‘‌দিদি শাড়ি’‌, ‘‌এবি টি শার্ট’‌!

শ্রাবণী গুপ্ত:‌ এবার পুজোয় ১২০০ ‘‌মার্কসীয়’‌ সাহিত্যের স্টল হয়েছে রাজ্য জুড়ে। ভোট না এলেও বই বিক্রি হচ্ছে দেদার। সোশ্যাল মিডিয়ায় জানাচ্ছেন বাম নেতারা। তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মূলত মমতা ব্যানার্জির লেখা বই বিক্রি করা হয় তাঁদের দলীয় স্টলে। এবছরও যথারীতি ‘‌জাগো বাংলা’‌ স্টল থেকে তৃণমূল নেত্রীর লেখা বই, অন্যান্য তৃণমূল নেতাদের লেখা বই এবং জাগো বাংলা শারদ সংখ্যা সাজিয়ে রাখা হয়েছিল বিক্রির জন্য। কিন্তু বাজি মেরে গেল অন্য জিনিস। ‘‌দিদি শাড়ি’‌ আর ‘‌এবি টিশার্ট’‌। 
একাধিক তৃণমূল নেতারা বলছেন, ‘‌জাগো বাংলা’‌ শারদ সংখ্যা বেশ ভাল বিকিয়েছে। কিন্তু বিক্রির নিরিখে সব কিছুকে টেক্কা দিয়েছে তৃণমূল নেত্রীর নামের শাড়ি আর অভিষেক ব্যানার্জির নামে তৈরি হাওয়া গোল গলা টিশার্ট। তবে তৃণমূল নেত্রীর নামে বানানো শাড়িতে মমতার ছবি নেই। সাদা শাড়িতে দুদিকে পাড়, তাতে তৃণমূলের জোড়া ফুলের লোগো। অন্যদিকে এবি টিশার্টে ও নেই অভিষেকের ছবি। সাদা গোল গলা টিশার্টে রয়েছে একাধিক রাজনৈতিক স্লোগান। সবথেকে বেশি জনপ্রিয় ‘‌খেলা হবে’‌ গেঞ্জি। অন্যান্য স্লোগানের মধ্যে আছে ‘‌এবার ত্রিপুরা’‌, ‘‌বাংলার গর্ব মমতা’‌। 
              
কলকাতার মধ্যে সিপিএমের অন্যতম উল্লেখযোগ্য বুকস্টল যাদবপুর ৮বি তে। এখানকার অন্যতম এক উদ্যোক্তা ফেসবুকে ইতিমধ্যেই ১ লক্ষ টাকার বই বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছেন। অন্যদিকে পাল্লা দিচ্ছে উত্তর কলকাতার সুকিয়া স্ট্রিটের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের ‘‌জাগো বাংলা’‌ স্টল। সেখানে তৃণমূল নেত্রীর নামের শাড়ি আর অভিষেকের নামে গেঞ্জি এখনও কিছু আছে। বাকি সব জায়গায় নিঃশেষ, বললেন তৃণমূল নেতারা। তবে এই লড়াইয়ে কার্যত অনেকটাই পিছিয়ে বিজেপি শিবির। গত বছর পর্যন্ত একাধিক পুজো প্যান্ডেলের পাশে বিজেপির তরফে বইয়ের স্টল দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এবার এক ইজেডসিসি চত্বর ছাড়া আর কোথাও তেমনভাবে চোখে পড়েনি বিজেপির স্টল।