আজকাল ওয়েবডেস্ক: ত্রিপুরায় ভোটের ফলাফলের পরেই শুরু হয়েছে হিংসা। ভেঙে ফেলা হয়েছে লেনিনের মূর্তি। আর তাই নিয়েই গোটা দেশজুড়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। এর মধ্যেই আরও বিতর্ক উসকে দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পরোক্ষভাবে এই ঘটনায় যেন  সমর্থনই জানালেন। তিনি বলেন, ‘‌এটা আর কিছুই নয়, সিপিএমের অত্যাচারের বহিঃপ্রকাশ। তবে মূর্তি ভেঙে বিচারধারাকে ধ্বংস করা কখনই যায় না। তবে গত ২৫ বছর ধরে ত্রিপুরায় অকথ্য অত্যাচার চালিয়েছে সিপিএম তথা বামফ্রন্ট। আর সাধারণ মানুষের সেই ক্ষোভের কারণেই এই ঘটনা ঘটেছে। তবে এটা চলা কখনই উচিত নয়। রাজ্যে পালাবদল নিরামিষ হবে, সেটা ভাবার কোনও কারণ নেই।’
এর পাশাপাশি ত্রিপুরায় বাম কর্মী–সমর্থকদের উপর হামলার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, গত বছরে তাঁদের ৯ জন নেতা–কর্মী খুন হয়েছেন। আরএসএস–এর চারজনকেও নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করলেও তিনি কোনও পদক্ষেপ করেননি। তাই এতদিন বাদে দিলীপের মনে হচ্ছে, পাল্টা একটু মারপিট তো হবেই। মানে এইা যারা গুণ্ডাগিরি করছে ত্রিপুরায়, তাঁদের কাজকর্মে কোনও ভুলই দেখছেন না তিনি। বরং মনে করছেন এটা স্বাভাবিক বিষয়। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top