আজকালের প্রতিবেদন: দুর্গাপুজোর বিভিন্ন পুজো কমিটিকে টাকা দেওয়া নিয়ে হাইকোর্টের রায়ে আমরা খুশি নই। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বুধবার এই মত জানান। তিনি বলেন, ইমামভাতাই হোক বা পুজো কমিটিকে টাকা দেওয়া, কোনওটাই আমরা সমর্থন করি না। কলকাতার সব বড় বড় পুজোকর্তারা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে উদ্বোধন করার জন্য আমন্ত্রণ জানান। মমতা ব্যানার্জিও যতটা পারেন তাঁদের আমন্ত্রণ রক্ষা করার চেষ্টা করেন। পুজোর সময় মুখ্যমন্ত্রীর এই প্রয়াসকে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ প্রশ্ন তোলেন, মুখ্যমন্ত্রী একাই কেন পুজোর উদ্বোধন করছেন?‌বুধবার দিলীপ ঘোষ একটি বৈঠকে মন্তব্য করেন, কেউ যদি কোনও দুর্নীতি করে থাকেন, তবে দল তার দায়িত্ব নেবে না। রাজ্য নেতাদের অনেকেই রান্নার গ্যাস কেলেঙ্কারির সঙ্গে যুক্ত বলে অভিযোগ রয়েছে।
আজ, বৃহস্পতিবার বিজেপি–র কার্যকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করবেন রাজ্যের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও কেন্দ্রীয় নেতা অরবিন্দ মেনন। এই দুই নেতা প্রথমে দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা ও মুকুল রায়ের সঙ্গে বসবেন। পরে রাজ্য দলের সব নেতাকে নিয়ে আলাপ–আলোচনা করবেন। অরবিন্দ মেনন সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহকে রাজ্য দল কেমন চলছে তার ওপর একটি রিপোর্ট দেবেন। ডিসেম্বরের ৩, ৫, ৭ বিজেপি–‌র রথযাত্রা। সাগর, তারাপীঠ ও কোচবিহার থেকে জনসংযোগ রথ বেরোবে। তাতে দলের নেতা–কর্মীরা যোগ দেবেন। সেই সময় অমিত শাহ–সহ বহু কেন্দ্রীয় নেতাই রাজ্যে আসবেন। ভোটের আগে এই কর্মসূচি নিয়ে বিজেপি বাংলা দলকে চাঙ্গা করতে চাইছে। ইতিমধ্যেই কৈলাস বিজয়বর্গীয়, শিব প্রকাশ ভোট পর্যন্ত কলকাতায় থাকার জন্য ফ্ল্যাট নিয়েছেন। বুধবার দলের সব মোর্চা নেতাকে নিয়ে রাজ্য নেতৃত্ব একটি বৈঠক করেন। রাজ্যের সব মোর্চা ঠিকঠাক কাজ করছে না বলে দিলীপ ঘোষ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top