Dilip Ghosh: সাংগঠনিক দুর্বলতা নেই, পুরভোটে প্রার্থী দিতে না পারায় দায়ী ‘‌সন্ত্রাস’‌:‌ দিলীপ

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সাংগঠনিক দুর্বলতা নয়, বরং সন্ত্রাসের জন্যই ভোটে প্রার্থী দিতে পারেনি বিজেপি।

শনিবার সকালে নদিয়ার কৃষ্ণনগরে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে এমনই দাবি করলেন বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘‌সারা বাংলায় সাংগঠনিক দুর্বলতা থাকলে এত প্রার্থী কী করে দিলাম?‌ কলকাতায় সন্ত্রাসের মধ্যেও সর্বত্র প্রার্থী দিয়েছি। রাজ্যের পুলিশ দিয়ে ভোট হচ্ছে। মানুষকে বেরোতে দেওয়া হচ্ছে না। যখন পুলিশ এবং গুন্ডা দিয়ে ভোট করাতে পারবে, তখনই তৃণমূল ভোট করাচ্ছে। বীরভূম এবং ডায়মন্ড হারবারের তিনটি পুরসভায় মনোনয়ন দিতে দেয়নি তৃণমূল।‌ সন্ত্রাস না করে তারা ভোটে জিততে পারবে না।’‌ যদিও এরই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‌সন্ত্রাসের মধ্যেও লড়াই করে দলকে বড় করেছি। লোকসভা, বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ করেছে। পুরভোটেও একাধিক জায়গায় জিতব।’‌

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়েও মাত্র ৭৭টি আসন পেয়েছিল বিজেপি। সেই প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘‌৩ থেকে ৭৭ হয়েছে। আমাদের ১০ শতাংশ ভোট ছিল, তা ৩৮ শতাংশে পৌঁছেছে। হয়তো কোথাও আমাদের গণ্ডগোল ছিল। দোষ ছিল। তাই আমরা জিততে পারেনি, সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাইনি।’‌

আরও পড়ুন:‌ পাখির চোখ ২০২৪!‌ তৃণমূলের পরবর্তী কর্মসমিতির বৈঠক হবে দিল্লিতে 

প্রসঙ্গত, গত কয়েক মাস ধরে সংগঠনের মধ্যেই ডামাডোল শুরু হয়েছে। ভোটের ফলের পর থেকে অনেকেই তৃণমূলে ফিরেছেন। পাশাপাশি দলের অভ্যন্তরেও কোন্দল শুরু হয়েছে। পুরভোটে অনেক জায়গায় প্রার্থীও দিতে পারেনি বিজেপি। যার ফলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় একাধিক পুরসভা দখল করেছে তৃণমূল। তবে তার কারণ হিসেবে  ‘‌সাংগঠনিক দুর্বলতা’‌ নেই বলেই দাবি করলেন দিলীপ ঘোষ।


 

আকর্ষণীয় খবর