শ্রাবণী গুপ্ত  

তিনি বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলে কথা! শুধু তাই নয়, ডাকাবুকো এই নেতা ২০১৬ বিধানসভা এবং ২০১৯ লোকসভা ভোটে পরপর জিতে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন সবাইকে। দলের যে কোনও মিটিং মিছিলে দিলীপ ঘোষের গরম গরম ভাষণ পছন্দ করেন বিজেপির কর্মী–সমর্থকেরা। তাই প্রত্যাশিতভাবেই এবারের ভোট প্রচারে জেলায় জেলায় বক্তা হিসেবে তাঁর চাহিদা তুঙ্গে। কাকদ্বীপ থেকে কালিম্পং ভোট প্রচারে গোটা রাজ্য জুড়ে ঘুরবেন দিলীপ ঘোষ। তৈরি হচ্ছে তার রুট ম্যাপ।
 দিলীপ ঘোষকে যারা কাছ থেকে দেখেছেন তাঁরা অনেকেই বলেন, তিনি কষ্টসহিষ্ণু। সাংসদ হিসেবে বিজনেস ক্লাসের অনুমোদন থাকলেও কলকাতা দিল্লি বিমানের ইকনমি ক্লাসেই যাতায়াত করেন তিনি। কিন্তু একে এই গরম। তার ওপরে গোটা রাজ্য জুড়ে ভোটের প্রচার, বক্তৃতা, রোড শো। সাধারণ স্করপিও সেই ধকল সামলাতে পারবে তো? আর গাড়িতে যিনি চড়বেন তাঁর ও তো একটু স্বাচ্ছন্দ্য দরকার! অতএব বিজেপির রাজ্য সভাপতির জন্য আসছে নতুন বড় গাড়ি।
 সূত্রের খবর, ১৬ আসনের ফোর্স ট্রাভেলার কেনা হয়েছে দিলীপ ঘোষ এর জন্য। গাড়ির ভেতরে এবং বাইরে সাজানোর কাজ চলছে এখন। অন্দরসজ্জার মূল লক্ষ্য একটু আরামের ব্যবস্থা করা। ১৬ টি আসনের পরিবর্তে একটু হাত পা ছড়িয়ে বসার মত কয়েকটি আসন তৈরি হচ্ছে। প্রয়োজনে এই গাড়িতে বসেই যাতে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়া যায় থাকছে সেই ব্যবস্থাও। ‘‌শুধু দিলীপ নন,  গাড়িতে তাঁর দেহরক্ষী, ব্যক্তিগত সহায়ক সহ অনেকেই থাকেন। বড় গাড়ি হলে সকলেই একটু ভাল করে বসতে পারবে।’‌ aajkaal.in কে বললেন রাজ্য বিজেপির এক নেতা।
 এ তো গেল ভেতরের সাজ। গাড়ির বাইরে ও চলছে স্লোগান, ফেস্টুন লাগানোর কাজ। তিনদিকে থাকছে বিজেপির প্রতীক পদ্ম ফুল এবং দিলীপ ঘোষের ছবি। ছবি থাকছে নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ এবং জে পি নাড্ডার।
 তৈরি হয়েছে নতুন স্লোগান। 
১) বদল হবে, হাল ফিরবে
 ২) গণতন্ত্র বাঁচাও, বাংলা বাঁচাও
 ৩) এবার ২০০ পার। 
গাড়ির পেছনে লেখা  থাকছে ‘‌লক্ষ্য সোনার বাংলা।’‌ সঙ্গে দিলীপ ঘোষের ছবি। এই ভোটে বিজেপির প্রধান মুখ দিলীপ ঘোষ। দল জিতলে দিলীপই কি হবেন নয়া মুখ্যমন্ত্রী? বিজেপি সূত্রে জানা গেছে এই বিষয়ে সঙ্ঘ পরিবারেরও সমর্থন আছে। তবে এখনই সাংসদ পদে ইস্তফা দিয়ে বিধানসভা ভোটে দিলিপকে প্রার্থী করতে চাইছে না দল। শোনা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব চায়, আপাতত রাজ্যজুড়ে প্রচার চালান দিলীপ ঘোষ। পরে দল ক্ষমতায় এলে কোনও কেন্দ্র থেকে জিতিয়ে আনা হবে তাঁকে।
 চমকপ্রদ তথ্য দিলেন রাজ্যের শাসক দলের এক সিনিয়র বিধায়ক। ‘‌দিদির দূত’‌ ক্যাম্পেনের জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক নেতাও নাকি এই একই ব্র্যান্ডের গাড়ি স্লোগান ফেস্টুনে সাজিয়ে ব্যবহার করছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top