Dengue: ‌‌ডেঙ্গি–ম্যালেরিয়া বাড়লেও পঞ্চায়েত উদাসীন, নর্দমা পরিষ্কারের উদ্যোগ নিলেন থানার ওসি 

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাজ্য জুড়ে বেড়ে চলেছে ডেঙ্গি ও ম্যালেরিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।

স্বাস্থ্য দপ্তর, পুরসভা ও পঞ্চায়েত এলাকা থেকে বারবার প্রচার চালানো হচ্ছে নিজেদের বসবাসের এলাকা পরিষ্কার রাখার জন্য। যাতে জমা জলে মশার বংশ বৃদ্ধি না ঘটতে পারে। 
যদিও বারবার আবেদনেও মুর্শিদাবাদের বড়ঞা থানার পাঁচথুপি এলাকায় স্থানীয় পঞ্চায়েত নর্দমা ও এলাকা পরিষ্কারের কোনও উদ্যোগ নেয়নি। তাই পুলিশকেই এগিয়ে আসতে হল এলাকার নর্দমা এবং জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করার কাজে। 
মঙ্গলবার সকাল থেকে বড়ঞা থানার ওসি সন্দীপ সেনের নেতৃত্বে হাতিগঞ্জ মোড় থেকে পাঁচথুপি বাজার সংলগ্ন প্রায় এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে শুরু হয় নর্দমা পরিষ্কার করার কাজ। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পাঁচথুপি পঞ্চায়েতের তরফ থেকে নর্দমা পরিষ্কার করার জন্য কোনও অর্থ বরাদ্দ না হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে প্রায় এক কিলোমিটারের বেশি লম্বা নর্দমা নোংরাতে পুরো ভরে গিয়েছিল।  সেখানেই মশার বংশ বিস্তার হচ্ছিল।
 সূত্রের খবর, হাতিগঞ্জ মোড় থেকে পাঁচথুপি বাজার পর্যন্ত এলাকাটি বনেদিপাড়া হিসেবেই পরিচিত। ওই এলাকায় প্রায় আট হাজারের বেশি মানুষের বসবাস। পাশাপাশি বাজারে প্রতিদিন প্রচুর মানুষ পাইকারি এবং খুচরো জিনিসপত্র কেনা–বেচা করতে আসেন। কিন্তু মশার কামড়ে তাদের জীবন ওষ্ঠাগত হয়ে উঠেছিল। 
মঙ্গলবার সকালে বড়ঞা থানার উদ্যোগে সাফাই কর্মীরা নর্দমার স্ল্যাব সরিয়ে ময়লা পরিষ্কার করার কাজ শুরু করেন। কাজ শেষ হতে তিন দিন লাগবে বলে জানা গেছে। বড়ঞা থানার ওসি সন্দীপ সেন বলেন, ‘‌প্রত্যেক ব্যবসায়ীকে বলা হয়েছে এখন থেকে নিজেদের দোকানের পাশে ডাস্টবিন রাখতে এবং ময়লা নির্দিষ্ট জায়গাতেই ফেলতে। নর্দমার ওপর কোনও অবৈধ নির্মাণকাজ আর হতে দেওয়া হবে না।’‌ নর্দমা পরিষ্কার এবং বাজার পরিষ্কার করার ফলে দু’‌দিনের জন্য পাঁচথুপি বাজার কালীতলাতে স্থানান্তরিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওসি। 

আরও পড়ুন:‌ শচীনের ১০০ সেঞ্চুরির রেকর্ড ভাঙতে পারবেন বিরাট?‌ পন্টিং দিলেন এই জবাব

আকর্ষণীয় খবর