‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গত ১৩ ফেব্রুয়ারি বাড়ি থেকে পড়তে যাওয়ার কথা বলে বেরিয়েছিল দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র অনির্বাণ হালদার। কিন্তু আর ফেরেনি। সারা বারাসত তন্নতন্ন করে খুঁজেও মেলেনি তার সন্ধান। শেষপর্যন্ত বারাসত থানায় ডায়েরি করেন পরিবারের লোকজনরা। তাও এতদিন নিখোঁজ ছিল সে। অবশেষে খোঁজ মিলল তার। তবে জীবিত নয় মৃত, বর্ধমানের জেলা হাসপাতালের মর্গে অনির্বাণের মৃতদেহ রাখা হয়েছে। সেখান থেকেই খোঁজ মেলে তার। জানা গিয়েছে, ১৩ ফেব্রুয়ারি রাতে শক্তিগড় স্টেশনের নিকটে রেললাইনের ধার থেকে উদ্ধার হয় অনির্বাণের মৃতদেহ। এছাড়া হাওড়া স্টেশন থেকে তার ট্রেনে ওঠার ফুটেজও সংগ্রহ করেছে পুলিস। কিন্তু কীভাবে মৃত্যু হল তার?‌ বারাসত থেকে শক্তিগড়– এতদূর কেনই বা গিয়েছিল অনির্বাণ?‌ আত্মহত্যা নাকি খুন?‌ এইসব প্রশ্নই এখন ভাবাচ্ছে পুলিসকে। আর সেই প্রশ্নগুলির কিনারা করতেই তদন্তে নেমেছেন আধিকারিকরা। এদিকে, ছেলের মৃত্যু সংবাদ শুনে পরিবারে নেমেছে শোকের ছায়া।  

জনপ্রিয়

Back To Top