আজকাল ওয়েবডেস্ক: রাজ্যসভায় সিপিএম সর্বসম্মত নির্দল প্রার্থী দিতে চায়। ‌মঙ্গলবার দলের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, আমরা এ নিয়ে কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা করব। দু–‌দলের সম্মতিতে নির্দল প্রার্থী দাঁড় করানো হবে, যাতে কোনও দলেরই সমর্থন করতে আপত্তি না থাকে। কিন্তু একটা ব্যাপারে নিশ্চিত থাকতে চাই যে, জয়ের পর তিনি বিক্রি হয়ে যাবেন না। 
এর আগে বাম ও কংগ্রেস মিলে শঙ্কর রায়চৌধুরিকে প্রার্থী দাঁড় করায়। কার্গিল যুদ্ধের পর শঙ্কর রায়চৌধুরি সর্বসম্মত প্রার্থী হন। বাংলা থেকে রাজ্যসভায় এখন ৫ জন যেতে পারেন। এর মধ্যে ৪টি আসনে তৃণমূলের জেতা নিশ্চিত। বাম ও কংগ্রেস সমর্থন করলে পঞ্চম আসনটি তারা পাবে। সিপিএম এখন সেই চেষ্টাই করছে। পশ্চিমবঙ্গ মানবাধিকার কমিশনের প্রাক্তন প্রধান অশোক গাঙ্গুলির নাম কানাঘুষোয় শোনা যাচ্ছে। চর্চা চলছে জহর সরকারের নাম নিয়েও। তিনি ছিলেন প্রসার ভারতীর প্রধান। আইএএস হিসেবে পশ্চিমবঙ্গে বিভিন্ন সময়ে উচ্চপদে কাজ করেছেন। পরে দিল্লিতে কাজ করেন। মতানৈক্যের জন্য তিনি প্রসার ভারতী থেকে পদত্যাগ করেন। এছাড়া মীরা পান্ডের নামও শোনা গেছে। তিনিও বাংলা ক্যাডারের আইএএস। অবসরের পর তিনি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের প্রধান হন। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top