আজকালের প্রতিবেদন: ‌‌‌‌‌জলপথ পরিবহণে যাত্রী সুরক্ষার্থে ভুটভুটির বদলে ২১ ফেব্রুয়ারি নামছে ৪টি যন্ত্রচালিত নৌকো। পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বুধবার বিধানসভায় একথা জানিয়েছেন। ধাপে ধাপে ২০০টি এইরকম যন্ত্রচালিত নৌকো নামবে। এই যন্ত্রচালিত নৌকোর অর্ডারও দেওয়া হয়ে গেছে। তৃণমূলের সমীরকুমার জানা মন্ত্রীর কাছে জানতে চান, নদীপথে যাত্রীদের সুরক্ষা দিতে পরিবহণ দপ্তর কী কী ব্যবস্থা নিয়েছে। পরিবহণ মন্ত্রী বলেন, সব জেটি সংস্কার হচ্ছে। জেটিগুলিতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা অটুট রাখার জন্য পুলিস এবং কর্মীরা থাকবেন, বড় বড় আলো থাকবে। শৌচাগার এবং লাইভ জ্যাকেটও থাকবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি জলপথ পরিবহণের ওপর বিশেষ জোর দিয়েছেন। গতিধারা ও জলধারা প্রকল্প এখানে রূপায়িত হচ্ছে। প্রায় ১২ হাজার ভুটভুটি চলে এখন। এই ভুটভুটি চালানোর সঙ্গে জড়িত মানুষরা যাতে রুটিরুজি না হারান তার জন্য সবাইকে নিয়মের মধ্যে আনা হচ্ছে। রেজিস্ট্রেশন করতে হবে তাঁদের। ভবিষ্যতে যাতে জলপথে কোনও দুর্ঘটনা না ঘটে, তার জন্য সমস্ত পরিকল্পনা রাজ্য নিচ্ছে। যন্ত্রচালিত নৌকো আধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি। যাঁরা এগুলির ইজারা নিয়েছেন, তাঁদেরও নিয়মের মধ্যে আসতে হবে। 
অন্যদিকে, নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজ কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী ডা.‌ শশী পাঁজা জানিয়েছেন, রাজ্যে এখন মোট ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৩৭৮টি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র রয়েছে। কোন জেলায় কটা অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র আছে, তার তথ্য তিনি অধ্যক্ষ বিমান ব্যানার্জির কাছে পেশ করেন। প্রতিমা রজক মন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করেন, বেশ কিছু অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের অবস্থা খুব খারাপ। তাঁরা ৫ হাজার টাকার নিচে ভাতা পাচ্ছেন। অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের সাইকেল দেওয়ার বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হল?‌ রাজ্য সরকার অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের জন্য খরচ করে ১২৫ কোটি টাকা। সাবিনা ইয়াসমিন 
মন্ত্রীকে প্রশ্ন করেন বিধবা ভাতা প্রতিবন্ধী ভাতা বাড়ানো হয়েছে কিনা। মন্ত্রী বলেন, রাজ্য সরকার সব দেখেশুনে ব্যবস্থা নিচ্ছে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top