আজকালের প্রতিবেদন: মুর্শিদাবাদ থেকে আসা করোনাজয়ীরা মঙ্গলবার থেকেই কাজ শুরু করে দিলেন। কোভিড–১৯ ওয়ারিয়র্স ক্লাব–এর ২৯ জন করোনাজয়ী সোমবার মুর্শিদাবাদ থেকে কলকাতায় আসেন। তাঁরা রয়েছেন যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনের অতিথি নিবাসে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় তাঁরা বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে কলকাতার ৫টি হাসপাতালে যান। সব হাসপাতালেই তাঁদের পুষ্পস্তবক দিয়ে বরণ করা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তাঁরা কথা বলেন। মেডিক্যাল কলেজে যে দলটি পৌঁছোয় তাঁদের সংবর্ধনা দিয়ে কী ধরনের কাজ করতে হবে সে–বিষয়ে অবহিত করা হয়। মূলত করোনাজয়ীরা মেডিক্যাল কলেজ, বেলেঘাটা আই ডি, এম আর বাঙুর, সিএনসিআই রাজারহাট, কেপিসি যাদবপুর  হাসপাতালগুলিতে করোনা–আক্রান্তদের মনোবল বাড়ানোর কাজ করবেন। রোগীর আত্মীয়দের সঙ্গে কথা বলবেন। মুর্শিদাবাদের কোভিড–১৯ ওয়ারিয়র্স ক্লাবের সম্পাদক, বিশিষ্ট চিকিৎসক অমরেন্দ্রনাথ রায় বলেন, ‘‌আজ থেকেই ওঁরা কাজ শুরু করেছেন। ধীরে ধীরে গোটা বিষয়টা বুঝে ওঁরা কাজ করবেন।’‌ কিছুদিন আগেই মুর্শিদাবাদের এই যুবকরাই জেলায় ফিরে আক্রান্ত হন। এঁরা সবাই ভিনরাজ্যে চাকরি করতেন। এরপর সাহসে ভর করে, অদম্য ইচ্ছাশক্তির জোরেই এঁরা করোনাকে জয় করেছেন। তাঁরাই বলছেন, ‘‌মনে সাহস রাখলে করোনা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।’‌ প্রথমে মুর্শিদাবাদেই করোনা জয়ীদের নিয়েই এ ধরনের সংগঠন তৈরি হয়। যা গোটা দেশে প্রথম। এরপর এঁদের দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে রাজ্যের অন্যান্য জেলাতেও সংগঠন তৈরি হচ্ছে। আক্রান্তদের মনোবল বাড়ানোর পাশাপাশি করোনাজয়ীরা সরকারের প্রতিনিধিদের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখবেন। কার কী পরিস্থিতি তা জানাবেন। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top