21 July: পঞ্চায়েতের উদ্যোগে ২১ জুলাই সমাবেশ সফল করার দেওয়াল লিখন, বিতর্ক মুর্শিদাবাদে 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: কোভিড অতিমারির কারণে গত দু’ বছর ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠান।

এবছর সংক্রমণের হার কিছুটা কমে আসায় তৃণমূলের তরফ থেকে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে ২১ জুলায়ের সমাবেশ কলকাতার ধর্মতলাতে বড় আকারের করার। ওই সমাবেশ অনুষ্ঠান সফল করতে তৃণমূল রাজ্য নেতৃত্বের তরফ থেকে একাধিক নির্দেশ সমস্ত জেলা, ব্লক এবং পঞ্চায়েত নেতৃত্বের কাছে নির্দেশ পৌঁছেছে। তবে এবারের উদ্যোগে অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘি ব্লকে। তৃণমূল দলের পরিবর্তে সেখানে তৃণমূল পরিচালিত সাগরদিঘি গ্রাম পঞ্চায়েত এই সমাবেশ সফল করার উদ্যোগ নিয়েছে।  
২১ জুলাইয়ের ধর্মতলার সমাবেশ সফল করার জন্য ইতিমধ্যেই সেখানে দেওয়াল লিখন সম্পূর্ণ। কিন্তু প্রায় প্রত্যেকটি দেওয়াল লিখন হয়েছে তৃণমূল পরিচালিত সাগরদিঘি পঞ্চায়েতের সৌজন্যে।  আর এই ছবি প্রকাশ্যে আসতেই তৃণমূলকে বিঁধেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল দল সরকারি টাকা নিজেদের রাজনৈতিক কর্মসূচি প্রচারের কাজে ব্যবহার করছে। 

আরও পড়ুন: তৃণমূলের শহিদ দিবসের দিনেই পাল্টা কর্মসূচি বিজেপির, নেতৃত্বে শুভেন্দু​ 


বিরোধীদের এই অভিযোগ প্রকারান্তরে স্বীকার করে নিয়েছেন ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান জিতু দাস। তিনি বলেন, 'পঞ্চায়েত প্রধান, উপপ্রধান, সাধারণ সদস্য এবং বুথ কর্মীদের উদ্যোগে সাগরদিঘি গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকাতে এই দেওয়াল লিখন হয়েছে। এই দেওয়াল লিখনের খরচ বহন করেছে সাগরদিঘি গ্রাম পঞ্চায়েত।' 
যদিও গ্রাম পঞ্চায়েতের কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি পালনের জন্য খরচ করতে পারে কি না তা জিতু দাসের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'এ বিষয়ে আমার কোনও ধারণা নেই।'
মুর্শিদাবাদ বিজেপি (উত্তর) সাংগঠনিক জেলা সভাপতি ধনঞ্জয় ঘোষ বলেন, 'তৃণমূলের এটাই সংস্কৃতি। ওরা দল এবং প্রশাসনের মধ্যে পার্থক্য করতে জানে না। এই কারণে পশ্চিমবঙ্গের শাসন ব্যবস্থা পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে।' তিনি আরও বলেন, 'গত বছরও ঠিক একই কাণ্ড এই পঞ্চায়েত ২১ জুলাইয়ের আগে করেছিল। তখন বিষয়টি সংবাদমাধ্যমের নজর এড়িয়ে যায়। 
অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের জঙ্গিপুর সাংগঠনিক জেলার চেয়ারম্যান কানাইচন্দ্র মণ্ডল গোটা বিষয়টি জানার পর বলেন, 'যারা এই কাজ করেছে তাদের হয়তো কিছু রাজনৈতিক স্বচ্ছতার অভাব রয়েছে। এমনটা হওয়া উচিত ছিল না। যদি এরকম দেওয়াল লিখন হয়ে থাকে আমরা সেটা শুধরে নেব।'
 

আকর্ষণীয় খবর