আজকাল ওয়েবডেস্ক: চীনের বাসিন্দা, অথচ ভিসা ছাড়াই গুরুগ্রামে হোটেল ব্যবসা চালাচ্ছিল হান জুনেই। গতকাল মালদায় অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে বিএসএফ-এর হাতে ধরা পড়ে সে। জিজ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর একাধিক তথ্য জানিয়েছে সে। এমনকী তার বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ উঠেছে। অতি সত্বর তাকে উত্তরপ্রদেশের সন্ত্রাস দমন শাখার হাতে তুলে দেওয়া হবে। হানের ব্যবসার পার্টনার সান জিয়াং আগেই লখনৌ থেকে গ্রেপ্তার হয়েছে। 
২০১০ সাল থেকে একাধিকবার ভারতে এসেছে হান জুনেই। গুরুগ্রামে স্টার স্প্রিং নামক এক হোটেলের মালিকানা আছে তার। ভিসা ছাড়া বিদেশি নাগরিক কীভাবে এদেশে হোটেল মালিক হল তা নিয়ে অবাক তদন্তকারীরাও। কিছুদিন আগে দেশে গিয়েছিল হান। এই সময় বন্ধু জিয়ান তাকে ১০-১৫টা ভারতীয় সিমকার্ড দেয়। 
গতকাল বিএসএফ-এর হাতে ধরা পড়ার পর হানের কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি ল্যাপটপ, দুটি আইফোন, বাংলাদেশি সিমকার্ড, বেশ কিছু আমেরিকান ডলার, বাংলাদেশি এবং ভারতীয় মুদ্রা।  ভারতে থেকে হান চরবৃত্তি করত কি না তা খতিয়ে দেখবে উত্তরপ্রদেশের সন্ত্রাস দমন শাখার পুলিশ।

জনপ্রিয়

Back To Top