East Bengal: মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে ইস্টবেঙ্গলের নতুন ইনভেস্টর ইমামি গ্রুপ

আজকাল ওয়েবডেস্ক: আবার ত্রাতা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

তাঁর হাত ধরেই আবার ইনভেস্টর এল ইস্টবেঙ্গলে। বুধবার নবান্নে ইমামি গ্রুপের সঙ্গে আলোচনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ইস্টবেঙ্গলের অন্যতম শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার।তারপরই লাল হলুদের নতুন ইনভেস্টরের নাম ঘোষণা করেন মমতা ব্যানার্জি। তাঁর মধ্যস্থতায় ইস্টবেঙ্গলে বিনিয়োগ করতে রাজি হয় ইমামি গ্রুপ। এদিন বৈঠকের পর মমতা ব্যানার্জি বলেন, 'আজ দুই পক্ষই আমার এখানে এসেছিল। দু'জনেই রাজি হয়েছে। যার ফলে ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল খেলার সমস্যা মিটে যাবে।' ক্লাবের পাশে থাকার জন্য এবং আবার ত্রাতার ভূমিকা পালন করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন লাল হলুদের শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার। তিনি বলেন, 'আমরা মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়ে ছোট করব না। শুধু ইনভেস্টর আনার বিষয়ে সাহায্য করা নয়, যেভাবে ক্লাবের সব বিষয়ে সাহায্য করেন সেটা বাংলার কোনও মুখ্যমন্ত্রী করেনি। ইমামি গ্রুপকেও ধন্যবাদ জানাব। আশা করব এই গ্রুপের সাহায্যে আগামী দিনে আমাদের ক্লাব এগিয়ে যাবে।'

ইমামি গ্রুপের ডিরেক্টর আদিত্য আগরওয়াল বলেন, 'ইস্টবেঙ্গলের মতো ঐতিহ্যশালী ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত হওয়া আমাদের কাছে গর্বের। দিদির জন্যই এটা সম্ভব হয়েছে। দিদির স্পোর্টসের প্রতি ভালবাসা দেখে আমরা মুগ্ধ। ইমামি গ্রুপ আগেও খেলাধুলোর সঙ্গে জড়িত ছিল। আশা করব ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সঙ্গে মিলে ফুটবলপ্রেমীদের সেরা স্ট্যান্ডার্ড উপহার দিতে পারব।' শ্রী সিমেন্ট সরে যাওয়ার পর ইনভেস্টর নিয়ে সমস্যায় পড়ে গিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। কর্তারা একাধিক সংস্থার সঙ্গে কথা বলছিলেন। বাংলাদেশের বসুন্ধরার গ্রুপের সঙ্গে কথাবার্তা অনেকদূর এগিয়েছিল। আলোচনা করতে দু'তিনবার ঢাকা পাড়ি দিয়েছিলেন লাল হলুদের শীর্ষকর্তারা। কিন্তু শেষপর্যন্ত ফলপ্রসূ হয়নি। শোনা গিয়েছিল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে কথা চলছে। মঙ্গলবারই তাতে শিলমোহর দিয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। কিন্তু তার ২৪ ঘণ্টা কাটার আগেই তড়িঘড়ি নবান্ন থেকে ইস্টবেঙ্গলের নতুন ইনভেস্টর ঘোষণা করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

আকর্ষণীয় খবর