আজকালের প্রতিবেদন- সোমবারও কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বললেন সিবিআই আধিকারিকরা। কথা হল প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ কুণাল ঘোষের সঙ্গেও। শনিবার প্রায় ৮ ঘণ্টা, রবিবার প্রায় ১০ ঘণ্টার পর সোমবারও রাজীবের সঙ্গে দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা কথা বলেন সিবিআই আধিকারিকরা। কথা হয় কুণালের সঙ্গেও। সন্ধে ৭টা নাগাদ রাজীব বেরিয়ে যাওয়ার পরও কুণালের সঙ্গে সিবিআই আধিকারিকদের একদফা কথাবার্তা চলে। জানা গেছে, আজ, মঙ্গলবারও রাজীবের সঙ্গে সিবিআই আধিকারিকদের কথাবার্তা চলবে।
এদিন সকাল ১১টা নাগাদ শিলঙের সিবিআই দপ্তরে পৌঁছন রাজীব। কিছুক্ষণ আগেই সেখানে পৌঁছে গিয়েছিলেন কুণাল। দুজনের সঙ্গে কথা বলেন সিবিআই আধিকারিকরা। কখনও আলাদা, তো কখনও একই সঙ্গে। দীর্ঘ কথাবার্তার বেশির ভাগটাই ছিল সারদা এবং রোজভ্যালি নিয়ে। রাজীবের সঙ্গে প্রথম দু’‌দিনের কথাবার্তার বেশির ভাগটাই ছিল সারদা নিয়ে। এদিন কিন্তু রোজভ্যালি সংক্রান্ত বেশ কিছু অজানা প্রশ্নের ডালি নিয়ে সিবিআই আধিকারিকরা তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। রাজীবের সঙ্গে কথা বলা হয় দুর্গাপুরে রোজভ্যালি নিয়ে একটি মামলার বিষয়েও। দীর্ঘ কথাবার্তার পর রেকর্ড করা তাঁদের হয় বয়ান। রেকর্ড হওয়ার পর দুজনেই সেই বয়ান খুঁটিয়ে দেখেন।
সকাল থেকে দীর্ঘ কথাবার্তার মাঝে ছিল মধ্যাহ্নভোজন এবং চা–পানের বিরতি। এদিন অবশ্য মধ্যাহ্নভোজন করতে ত্রিপুরা ক্যাসেলে ফিরে যাননি রাজীব। সিবিআই সূত্রে খবর, বেশ কিছু বিষয়ে জানা এখনও বাকি। তাই মঙ্গলবারও ফের একবার তাঁর সঙ্গে কথা বলা হবে। 
রোজভ্যালি নিয়ে কথাবার্তা বলতে রবিবারই শিলঙে পৌঁছে গিয়েছিলেন এ বিষয়ক মামলার তদন্তকারী আধিকারিক শোজম শেরপা। রাজীবের কাছে জানতে চাওয়া হয় রাজ্য সরকারের গঠিত ‘‌সিট’‌ কেন দুর্গাপুরে রোজভ্যালির বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি সিবিআইকে জানায়নি। এদিন সকালে কথাবার্তা শুরু হতেই মঙ্গলবার থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে, তাই সেই সময় পুলিশ কমিশনার হিসেবে তাঁর কলকাতায় থাকা জরুরি, তা মনে করিয়ে দিয়েছিলেন।‌‌ কিন্তু কিছু বিষয়ে জানা বাকি থাকায় মঙ্গলবার, চতুর্থ দিনেও কথাবার্তা জারি থাকবে।‌‌

রাজীব কুমার।

জনপ্রিয়

Back To Top