নিরুপম সাহা, ঠাকুরনগর: ভোটের ব্যস্ততার মধ্যেই ঠাকুর পরিবারের নিয়ম মেনে শুক্রবার প্রয়াত বড়মা বীণাপাণি ঠাকুরের শ্রদ্ধানুষ্ঠানের কাজ করলেন তঁার বড় বউমা মমতাবালা ঠাকুর। এদিন তিনি দুই মেয়েকে নিয়ে ঠাকুরবাড়ির নাটমন্দিরে পারলৌকিক কাজ করেন। তঁার সঙ্গে ছিলেন মতুয়া ভক্তরা।
গত ৫ মার্চ কলকাতার হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ‌মতুয়া সম্প্রদায়ের বড়মা বীণাপাণি ঠাকুর। তাঁর প্রয়াণের খবরে ঠাকুরনগর ঠাকুরবাড়ি–সহ গোটা মতুয়া সমাজে শোকের ছায়া নেমে আসে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত্যের ব্যবস্থা করে রাজ্য সরকার। বড়মার পারলৌকিক কাজ শেষ হওয়ার আগেই ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে যায়। ফলে একদিকে ভোটের ব্যস্ততা, অন্যদিকে বড়মার প্রয়াণের শোক। এই দুটি বিষয়কে সামলাতে হচ্ছে ঠাকুর পরিবারের বড়মার বড় বউমা মমতাবালা ঠাকুরকে। বৃহস্পতিবার সকালে বড়মার ছবিতে প্রণাম করে প্রথমদিনের ভোট প্রচার শুরু করেন মমতাবালা ঠাকুর। শুক্রবার ছিল বড়মার শ্রদ্ধানুষ্ঠান। এদিন ভোটের ব্যস্ততাকে সাময়িকভাবে সরিয়ে রেখে পারিবারিক দায়িত্ব সামলাতে ব্যস্ত ছিলেন তিনি। সকাল থেকেই ঠাকুরবাড়ির নাটমন্দিরে বড়মার শ্রদ্ধানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বড়মার ছবি মালা দিয়ে সাজিয়ে তুলেছিলেন ভক্তরা। পরিবারের নিয়ম মেনে বড়মার শ্রদ্ধানুষ্ঠানের কাজ করেন মমতাবালা ঠাকুর।

 বড়মার শ্রদ্ধানুষ্ঠানে মমতাবালা ঠাকুর এবং মতুয়া ভক্তরা।‌ ছবি:‌ প্রতিবেদক 

জনপ্রিয়

Back To Top