উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল থেকে পালিয়ে গেল ব্ল্যাক ফাঙ্গাস রোগী!‌ মহিলাকে খুঁজছে পুলিশ

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মারণ ভাইরাস করোনার মধ্যেই রাজ্যে থাবা বসাচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। আর ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত এক মহিলাকে নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হয়ে ওই মহিলা ভর্তি ছিলেন উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। কিন্তু হাসপাতাল থেকে পালিয়ে গিয়েছেন ওই মহিলা। যা নিয়ে বাড়ছে ধোঁয়াশা। ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত ওই মহিলার খোঁজে জোর তল্লাশি শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। হাসপাতাল সূত্রে খবর, ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত ওই মহিলার বাড়ি মুর্শিদাবাদে। বিভিন্নরকম উপসর্গ থাকায় উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে এসে শারীরিক পরীক্ষা করান। সেখানেই দেখা যায় তাঁর শরীরে দানা বেঁধেছে মিউকর মাইকোসিস অর্থাৎ ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। হাসাপাতালে ভর্তি করানো হয়। নার্সদের থেকেই মহিলা জানতে পারেন তাঁর শরীরে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস থাবা বসিয়েছে। এরপর থেকেই তিনি উত্তেজিত হয়ে পড়েন। নার্সরা তাঁকে শান্ত করার চেষ্টাও করেন। কিন্তু বেশ কিছুক্ষণ পরে জানা যায় ওই মহিলা হাসপাতালের বেডে নেই। হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে খোঁজাখুঁজি শুরু হয়ে যায়। কিন্তু কোথাও দেখতে পাওয়া যায় না তাঁকে। এ প্রসঙ্গে ত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ডিন সন্দীপ সেনগুপ্ত বলেন, ‘‌আমাদের হাসপাতাল থেকে একজন ব্ল্যাক ফাসাঙ্গে আক্রান্ত রোগী নিখোঁজ হয়ে গিয়েছেন। তাই আমরা পুলিশে খবর দিই। গোটা বিষয়টি পুলিশকতে জানাই। পুলিশ খুঁজছে ওই মহিলাকে।’‌ পুলিশের তরফে ওই মহিলার খোঁজ করা হচ্ছে। মহিলার বাড়ি মুর্শিদাবাদে। তাই মুর্শিদাবাদ জেলাতেও তল্লাশি চলছে। এখনও পর্যন্ত কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি ওই মহিলার।