আজকালের প্রতিবেদন: রামনবমীতে অস্ত্র নিয়েই মিছিল করবে বিজেপি নেতারা। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের হাতে থাকবে গদা। এ কথা জানিয়ে মঙ্গলবার দিলীপ ঘোষ বলেন, রামনবমীতে  আমাদের কর্মসূচি প্রথা অনুসারেই হবে। রাজ্য সরকার কিছুদিন আগে অস্ত্র নিয়ে কোনওরকম মিছিল করা যাবে না বলে নির্দেশ জারি করেছিল। কিন্তু এই নির্দেশ মানছে না বিজেপি। তবে আক্ষরিক অর্থে বলতে গেলে, রামনবমীর কর্মসূচি সরাসরি বিজেপি নেয় না। কর্মসূচি ঠিক করে বিজেপি প্রভাবিত ক্লাব, ধর্মীয় আখড়া। সেইসব কর্মসূচিতে বিজেপি নেতা–‌কর্মী–‌সমর্থকেরা হইহই করে যোগ দেন। এবার দিলীপ ঘোষ খড়্গপুরে ওই কর্মসূচিতে অংশ নেবেন। তিনি জানিয়েছেন, রাজ্যের সব ব্লকে রামনবমী পালন করা হবে। 
এদিন তাঁর মন্তব্য, ‘‌রাম মর্যাদাপুরুষ, তিনি দেশের আত্মা। তিনি অস্ত্রধারী। রামের জন্মদিনে উৎসব হওয়াই রীতি।’‌ তৃণমূল এবার রামনবমী পালন করছে জেনে তাঁর প্রশ্ন, ‘‌মানুষ কখন রামনাম করে?‌’‌ এ বছর বিজেপি দু’‌দিন ধরে রামের জন্মদিন পালন করবে। দিলীপ ঘোষ ২৪ মার্চ মেদিনীপুরে বাইক র‌্যালিতে অংশ নেবেন। সেদিন রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রামনবমীকে কেন্দ্র করে বাইক র‌্যালি হবে। দু’‌দিনই শোভাযাত্রা ও মিছিল হবে।
আরএসএস আগে জানায়, তারা এবার অস্ত্র নিয়ে মিছিল করবে না। দিলীপ ঘোষ বলেন, যে যেভাবে পারবে সেভাবেই মিছিল ও শোভাযাত্রায় অংশ নেবে।
রাজ্য দলের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে শিশুচুরির অভিযোগে সিআইডি জেরা করেছে। তিনি মধ্যপ্রদেশে। সিআইডি অফিসারেরা ইন্দোরে গিয়ে তাঁকে জেরা করেন। এ প্রসঙ্গে রাজ্য সভাপতির মন্তব্য, সিবিআই সারদা–‌নারদ কেসে যুক্ত অভিযোগে অনেককে জেরা করছে। তাই রাজ্য হয়তো ভাবছে, সবাই সেরকম অভিযুক্ত হোক। ১৭ মার্চ ‘‌সুশাসন’‌ নিয়ে বৈঠক করবে রাজ্য বিজেপি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলি সম্পর্কে পঞ্চায়েত এলাকার দলীয় কর্মীদের সচেতন করাই এর উদ্দেশ্য। কতগুলি কেন্দ্রীয় প্রকল্প রাজ্যে চলছে, রাজ্য সরকার সেই প্রকল্প কীভাবে চালাচ্ছে, প্রকল্পের জন্য কত মানুষ সুবিধা পাচ্ছেন, কেন্দ্রের টাকা কীভাবে খরচ হচ্ছে— এ সব সম্পর্কে জানানো হবে। দলীয় কর্মীদের বলা হবে, তাঁরা যেন আলোচনা থেকে বেরিয়ে আসা বার্তা ভোটারদের কাছে পৌঁছে দেন। তাই পঞ্চায়েত ভোটের আগেই এই আলোচনার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে ডাঃ‌ সুভাষ সরকার জানান।

জনপ্রিয়

Back To Top