আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হলেন অরুণ ব্যানার্জি। মঙ্গলবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। চেয়ারম্যান পদে নিযুক্ত হয়েই অরুণ বললেন, গত ২৩ মে–র পর থেকে এলাকায় থমকে থাকা উন্নয়নকে ফের স্বপথে ফিরিয়ে আনাই তাঁদের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ। নাম না করে বিজেপির বিরুদ্ধে ভাটপাড়া পুরসভা দখলের পর এলাকায় সন্ত্রাস চালানোর অভিযোগও তুলেছেন অরুণ ব্যানার্জি। তাঁর আশা, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির দেখানো পথে এবং তাঁর সহযোগিতাতেই এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করবে তাঁরা। সংবাদমাধ্যমের কাছেও তাঁদের পাশে থাকা এবং সহযোগিতার আবেদন করেছেন নতুন চেয়ারম্যান। উন্নয়নের মাধ্যমেই এলাকায় এতোদিনের ঘটা সমস্যার সমাধান করতে পারবেন বলেও আশাপ্রকাশ করেছেন তিনি। তৃণমূলের তরফে যে তিনজনের নাম চেয়ারম্যান পদে প্রস্তাব করা হয়েছিল তাঁরা হলেন, ২৩  নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সত্যেন রায়, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিমাংশু সরকার এবং ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অরুণ ব্যানার্জি। উত্তর ২৪ পরগনা তৃণমূল জেলা পর্যবেক্ষক তথা ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের সভাপতি নির্মল ঘোষের কাছে প্রস্তাবিত নামগুলি পাঠানো হলে অরুণ ব্যানার্জির নাম চূড়ান্ত করেন তিনি। প্রসঙ্গত, তৃণমূলের তরফে বলা হয়েছিল, যাঁরা দীর্ঘদিন দলের সব রকম বিপদআপদে সঙ্গে থেকেছেন, তাঁদেরকেই পুরপ্রধান নির্বাচনে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। সেই মতোই বর্ষীয়ান কাউন্সিলর অরুণ ব্যানার্জি ভাটপাড়া পুরসভার পুরপ্রধান নির্বাচিত হন। এদিন নতুন পুরপ্রধান নির্বাচনের কারণে ভাটপাড়া এবং সংলগ্ন এলাকায় কোনওরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বিশাল পুলিসবাহিনী মোতায়েন করা হয়। অরুণ ব্যানার্জিকে অভিনন্দন জানিয়ে জেলা পর্যবেক্ষক নির্মল ঘোষ জানালেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই পুর পরিষেবার কাজ শুরু করবে নতুন পুরবোর্ড।        

জনপ্রিয়

Back To Top