Berhampore Municipality: বেআইনি হোর্ডিং ভাঙতে তৎপর বহরমপুর পুরসভা 

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বহরমপুর শহরের বেআইনি ও বিপজ্জনকভাবে নির্মিত হোর্ডিংগুলো ভেঙে ফেলার বিষয়ে এবার উদ্যোগী হচ্ছে তৃণমূল পরিচালিত বহরমপুর পুরসভা।

সূত্রের খবর বহরমপুর পুর এলাকাতে প্রায় ২–৩ হাজার হোর্ডিং থাকলেও এদের মধ্যে বেশিরভাগ হোর্ডিং মালিক বহরমপুর পুরসভাকে কোনওরকম পুর কর দেন না। 
অন্যদিকে শহরের একাধিক বহুতল বা রাজপথের ধারে নির্মিত এই হোর্ডিংগুলো ঠিকঠাক রক্ষণাবেক্ষণও করেন না হোর্ডিংয়ের মালিকেরা। তার ফলে শহরে একাধিক হোর্ডিং অত্যন্ত বিপজ্জনক অবস্থার মধ্যে রয়েছে। ঝড় বৃষ্টির সময় এই সমস্ত হোর্ডিংগুলো বিপজ্জনকভাবে দুলতে থাকে বলে অনেকেই দাবি করেছেন। 
তাই কালবৈশাখী ঝড় বা অন্য কোনও প্রাকৃতিক দূর্যোগের সময় হোর্ডিং ভেঙে যাতে বড় কোনও বিপদ না হয় তার জন্য আগেভাগেই পদক্ষেপ করতে চাইছে বহরমপুর পুরসভা। 
তৃণমূল পরিচালিত বহরমপুর পুরসভার চেয়ারম্যান নাড়ুগোপাল মুখার্জি বলেন, ‘‌বহরমপুর শহরে প্রায় ২–৩ হাজার হোর্ডিং থাকলেও এর মধ্যে বেশিরভাগ হোর্ডিং বেআইনি। এই সমস্ত হোর্ডিং যারা লাগিয়েছেন তাদের অনেকেই বহরমপুর পুরসভাকে কোনওরকম কর দেন না। বহরমপুর শহরের হাতে গোনা কয়েকটি সরকারি হোডিং রয়েছে। বেশিরভাগ হোর্ডিং আমাদের দৃষ্টির বাইরে রয়ে থেকে গেছে এবং পুরসভাকে অন্ধকারে রেখে কেউ বা কারা এই সমস্ত হোর্ডিং দীর্ঘদিন ধরে লাগিয়ে রেখেছেন।’‌ 
তাঁর কথায়, ‘‌কালবৈশাখী ঝড় বা অন্য কোনও প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সময় অবৈজ্ঞানিক এবং অবৈধভাবে নির্মিত এই সমস্ত হোর্ডিং ভেঙে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তেমন কোনও ঘটনা ঘটলে বহরমপুরের পুর এলাকার বাসিন্দাদের বড় বিপদ হতে পারে। তাই আগেভাগেই আমরা পদক্ষেপ করতে চাইছি।’‌ বহরমপুর পুরসভা সূত্রে জানা গেছে, পুর এলাকাতে যে সমস্ত হোর্ডিংগুলো লাগানো রয়েছে তার বেশিরভাগ মালিক কোনও পুর কর না দেওয়াতে এগুলো ভেঙে ফেললে পুরসভার আর্থিকভাবে তেমন কোনও ক্ষতি হবে না। অন্যদিকে  শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে। পুরসভার এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন শহরবাসী। 

আরও পড়ুন:‌ মাঙ্কিপক্স নিয়ে আগেভাগেই সতর্ক থাকতে চাইছে রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর, জারি নয়া নির্দেশিকা 
 

‌‌

আকর্ষণীয় খবর