শাহজি সরকার, অরঙ্গাবাদ, ২১ অক্টোবর- এনআরসি–‌বিরোধী প্রতিবাদ–‌সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ২০ অক্টোবর, রবিবার মুর্শিদাবাদ জেলার অরঙ্গাবাদে বিএড কলেজ ময়দানে। শিবম এডুকেশন অ্যান্ড সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে, রাজ্যের শ্রম দপ্তরের মন্ত্রী ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী তথা সমাজসেবী জাকির হোসেনের নেতৃত্বে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়। মুর্শিদাবাদ জেলায় এনআরসি–‌বিরোধী সভা এটাই প্রথম। এনআরসি–‌বিরোধী প্রতিবাদ–‌সভার মধ্য দিয়ে মন্ত্রী জাকির হোসেন  মুর্শিদাবাদ জেলার মুখ হয়ে উঠছেন। জাকির হোসেন বলেন, ‘‌রক্ত দেব, তবু বাংলায় এনআরসি হতে দেব না। এনআরসি–‌বিরোধী আন্দোলন–‌প্রতিবাদ আমাদের এই জেলা থেকেই তীব্র থেকে তীব্রতর আকারে সারা বাংলা তথা সারা ভারতে ছড়িয়ে দেব। প্রয়োজনে মানুষকে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য আমাদের শিবম এডুকেশন অ্যান্ড সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষে কাগজপত্র এবং মানুষের সমস্যার সমাধান করতে লোক রাখা হবে। এনআরসি রুখতে লাগাতার আন্দোলন চলবে। দরকারে জেলা আদালত, হাইকোর্ট, এমনকী সুপ্রিম কোর্টেও যাব।’‌ শিল্পপতি জাকির হোসেন এ‌ও বলেন, ‘‌আমি বিশ্বাসী মানবসেবায়। আমাদের আন্দোলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সার্বিক সহযোগিতা করছেন।’‌ জাকির হোসেন এনআরসি–‌র তীব্র বিরোধিতা করে বিজেপি নেতা অমিত শাহ, নরেন্দ্র মোদি ও দিলীপ ঘোষকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন। এ ছাড়া সভায় ভাষণ দেন প্রতুল মুখোপাধ্যায়, তৌসিফ আহমেদ খঁা, ইমতাজ আলি মোল্লা, প্রসেনজিৎ বিশ্বাস। শিবম এডুকেশন অ্যান্ড সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষে দীপক দাস, মন্টু রহমান ও রুকুমুদ্দিন শেখদের উদ্যোগে এবং মন্ত্রী জাকির হোসেনের নেতৃত্বে এনআরসি–‌বিরোধী আন্দোলন এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি জেলায় পৃথক দুটি খুন–‌হয়ে–‌যাওয়া পরিবারের দায়িত্বভার গ্ৰহণ করে মানবিক মুখ হয়ে উঠেছেন জাকির হোসেন। পাশাপাশি এনআরসি–‌বিরোধী আন্দোলনের মুখও তিনিই।‌‌‌‌

অরঙ্গাবাদে বিএড কলেজ ময়দানে মন্ত্রী জাকির হোসেন। ছবি:‌ আজকাল

জনপ্রিয়

Back To Top