আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সরকারি অনুদানের টাকা পুজোর জাঁকজমকে খরচ করা যাবে না। সেই টাকার ৭৫ শতাংশ দিয়ে কিনতে হবে কোভিড মোকাবিলার সরঞ্জাম। বাকি ২৫ শতাংশ পুলিশ–সাধারণ মানুষ সমন্বয়ে খরচ করতে হবে। এই অন্তর্বর্তী নির্দেশই দিল কলকাতা হাইকোর্ট। 
পাশাপাশি এও জানিয়ে দিল, পুজোর পর অনুদানের টাকা কীভাবে খরচ করা হয়েছে, তা সংশ্লিষ্ট পুজো কমিটিকে জেলা প্রশাসনের কাছে হিসেব দিতে হবে। সেই হিসেব পরে হাইকোর্টে জমা করতা হবে। তার পরেই এই মামলার পরবর্তী শুনানি করবে কলকাতা হাইকোর্ট। 
মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ঘোষণা করেছিলেন, এবার রাজ্যের প্রত্যেক পুজো কমিটিকে ৫০ হাজার টাকা অনুদান দেওয়া হবে। করোনার আবহে আর্থিক ঘাটতির কারণে অনেক পুজোই বন্ধ হতে চলেছিল। তাই তাদের সাহায্যে এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছিল রাজ্য সরকার। ঘোষণা মতো, রাজ্যের ৩৬,৯৪৬টি পুজো কমিটির প্রত্যেকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান পেত। বিদ্যুৎ, দমকলের অনুমোদনের জন্য আবেদনেও ছাড় দেওয়া হয়েছিল।
এই ঘোষণার বিরুদ্ধে ৯ অক্টোবর হাইকোর্টে পিটিশন জমা করে সিটু নেতা সৌরভ দত্ত। পিটিশনে বলা হয়, পুজোয় এই অনুদান দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার বিরোধী। সংবিধান নাগরিকদের যে প্রাথমিক অধিকার দিয়েছে, তারও বিরোধিতা করে এই অনুদান। সেই পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতেই এই রায় দিল হাইকোর্ট। 

জনপ্রিয়

Back To Top